fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

লোকাল ট্রেন চালু করতে বৈঠকে বসতে চেয়ে এবার রেলকে চিঠি নবান্নের

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: এর আগেই রাজ্যে লোকাল ট্রেন চালু করতে চেয়ে রাজ্য প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছিল পূর্ব রেল। কিন্তু উৎসবের মরসুমে এই নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে নারাজ ছিল রাজ্য। এবার রাজ্যের তরফেই সম্মতি জানিয়ে চিঠি পাঠানো হল রেল মন্ত্রককে। জানানো হয়েছে, গাইডলাইন তৈরিতে রেলের সঙ্গে বৈঠকে বসতে চায় রাজ্য।

নবান্ন সূত্রের খবর, অতিরিক্ত মুখ্য সচিব এইচ কে দ্বিবেদী এই চিঠি পাঠিয়েছেন পূর্ব রেলের জেনারেল ম্যানেজার সুনীত শর্মাকে। তাতে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের লোকাল ট্রেন চালাতে কোনও আপত্তি নেই। দীর্ঘদিন ধরে স্টাফ স্পেশাল ট্রেন চালানোর কারণে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হচ্ছে। তাই লোকাল ট্রেন চালু করতে চায় রাজ্য সরকারও। তবে কোভিড মহামারীর কারণে সঠিক স্বাস্থ্যবিধির আয়োজন করে লোকাল ট্রেন চালু করা হোক। আর তার গাইডলাইন রেল-রাজ্য বৈঠকে বসে ঠিক করা হোক।

প্রসঙ্গত, করোনা লকডাউনের জেরে আট মাসেরও বেশি সময় ধরে রাজ্যে বন্ধ রয়েছে লোকাল ট্রেন পরিষেবা। ধীরে ধীরে সব কিছু খুললেও লোকাল ট্রেন পরিষেবা চালু না-হওয়ায় জনমনে বিক্ষোভ বাড়ছে। রেলকর্মীদের জন্য সারাদিনে গুটিকতক ‘স্পেশাল ট্রেন’ চলে। রুটিরুজির ধান্দায় নিরুপায় হয়ে তাতেই উঠে পড়ছে সাধারণ মানুষ।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুর, হুগলির পান্ডুয়া-সহ বেশ কয়েক’টি স্টেশনে ট্রেনের নিত্যযাত্রীরা ইতিমধ্যে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। গত মাসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছিলেন, লোকাল ট্রেন চালু হলে আপত্তি নেই। যদিও রেলের তরফে তখন জানানো হয়েছিল, রাজ্য আগে তাদের চিঠি দিক। এর প্রেক্ষিতে রাজ্যের তৎকালীন স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় রেল বোর্ডের চেয়ারম্যানকে একটি চিঠিও দেন। তার ভিত্তিতে শুরু হয় রেল ও রাজ্যের মধ্যে আলোচনা। লোকাল ট্রেন না চললেও আলোচনার প্রেক্ষিতে ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে মেট্রোরেল পরিষেবা চালু হয়ে যায়। এবার লোকাল ট্রেনের জন্যও বৈঠকে বসার ইচ্ছাপ্রকাশ করল রাজ্য প্রশাসন।

Related Articles

Back to top button
Close