fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

ইরাকের সামরিক শক্তি বৃদ্ধিতে সহযোগিতার আশ্বাস ইরানের

তেহেরান : ইরাকের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা শক্তিশালী করার লক্ষ্যে বাগদাদকে সব রকম সহযোগিতা করতে প্রস্তুত রয়েছে ইরান। শনিবার তেহরানে সফররত ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লে. জেনারেল জুমা আনাদ সাদুনকে এমনই আশ্বাস দিয়েছেন ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমির হাতামি।

 

তিনি আরও জানান, ‘মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিকেই এ অঞ্চলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। বহিঃশক্তি দিয়ে এই নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠা করা যাবে না। মনে রাখতে হবে, মধ্যপ্রাচ্যে বহিঃশক্তির উপস্থিতি এ অঞ্চলের নিরাপত্তাহীনতার মূল কারণ।’

 

জেনারেল হাতামি এদিন বলেন, ‘আমেরিকার নেতৃত্বাধীন বৃহৎ শক্তিগুলির এ যাবতকালের আচরণ থেকে বোঝা যায়, মধ্যপ্রাচ্যকে দীর্ঘমেয়াদে অনিরাপদ করে রাখার জন্য তাদের সুদূরপ্রসারি পরিকল্পনা রয়েছে। কাজেই এরকম কুচক্রী পরিকল্পনার বিরুদ্ধে ইরান ও ইরাক সহ মধ্যপ্রাচ্যের সব দেশকে রুখে দাঁড়াতে হবে। আর তাই, ইরাকের রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্বের প্রতি তেহরানের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত ইরাক পুনর্গঠনের কাজে ইরান অংশ নিতে আগ্রহী।’

 

উল্লেখ্য, ২০০৩ সালে ইরাকের তৎকালীন স্বৈরশাসক সাদ্দাম সরকারের পতনের পর থেকে বাগদাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রক্ষা করে আসছে ইরান। প্রতিবেশী দুটি দেশ সন্ত্রাসবাদের মোকাবিলায় একে অপরের পাশে দাঁড়িয়েছে। গত ১৯ জুলাই, দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক জোরদার বাগদাদ সফর করেন ইরানের বিদেশ মন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ।

 

সেসময় দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক নিয়ে ইরাকের বিদেশ মন্ত্রী ফুয়াদ হোসেনের সঙ্গে বৈঠক করেন জারিফ। এরপর দুই দেশের বিদেশ মন্ত্রী সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, ‘সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় নিজেদের সহযোগিতা অব্যাহত রাখবেন তারা। এমনকি সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের মোকাবিলায় তারা সদাপ্রস্তুত থাকছেন।’

এদিনও একই কথা শুনিয়েছেন ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী আনাদ সাদুন। তিনি বলেন, ইরাক থেকে উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী দায়েশ (আইএস) বিতাড়নে ইরানের গুরুত্বপূর্ণ সহযোগিতার কথা বাগদাদ চিরকাল মনে রাখবে।

Related Articles

Back to top button
Close