fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

ইরান চাপের মুখে হতাশ হয়ে পড়েছে: ব্রায়ান হুক, পাল্টা মস্কো-তেহেরানের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আমেরিকার ‘সর্বোচ্চ চাপ’ প্রয়োগের নীতির কারণে ইরানের পররাষ্ট্রনীতি মুখ থুবড়ে পড়েছে বলে দাবি করেছেন মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ‘ইরান অ্যাকশন’ গ্রুপের প্রধান ব্রায়ান হুক। এক সাক্ষাৎকারে হুক দাবি করেন, আমেরিকার চাপের কারণে ইরান হতাশ হয়ে পড়েছে এবং মধ্যপ্রাচ্যে নিজের প্রভাব হারাচ্ছে। যদিও কিছুদিন আগেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প দাবি করেছিলেন, তার সরকারের চাপের কারণে ইরানের শক্তি কমে এসেছে।

অন্যদিকে, হুকের এই মন্তব্যের কিছু পড়েই ইরানের পাশে দাঁড়িয়েছে রাশিয়া। মহাকাশে কৃত্রিম উপগ্রহ ‘নুর’ পাঠানোর জন্য ইরানের মহাকাশ গবেষণায় সফলতা দাবি করেছে রাশিয়া। একইসঙ্গে, ইরান রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাব লঙ্ঘন করেছে বলে মার্কিন অভিযোগও খারিজ করেছে রাশিয়া। ভিয়েনায় আন্তর্জাতিক সংস্থার সদরদপ্তরে নিযুক্ত রাশিয়ার স্থায়ী প্রতিনিধি মিখাইল উলিয়ানোভ দাবি করেছেন, ইরান নয় বরং আমেরিকা রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব লঙ্ঘন করছে। কিভাবে? উলিয়ানোভের দাবি, ওয়াশিংটন ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে নিজেই নিরাপত্তা পরিষদের ২২৩১ নম্বর প্রস্তাব লঙ্ঘন করেছে।

আরও পড়ুন: স্কুল অফ ট্রপিক্যাল মেডিসিনে দ্বিতীয়বার করোনার সংক্রমণ! এবার আক্রান্ত ২ আয়া

এর আগের দিন রুশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মারিয়া জাখারোভা বলেছিলেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচির ব্যাপারে রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ যে প্রস্তাব পাস করেছে তার সঙ্গে ইরানের কৃত্রিম উপগ্রহ পাঠানোর কোনো সম্পর্ক নেই।

অন্যদিকে, ইরানের প্রথমসারির সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, মার্কিন কর্মকর্তারা এমন সময় ইরানের হতাশার কথা দাবি করলেন, যখন ইরাক ও সিরিয়া সরকারের আনুষ্ঠানিক আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ওই দুই দেশের সন্ত্রাস বিরোধী যুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে ইরান। সেইসঙ্গে ইরান ঘোষণা করেছে, মধ্যপ্রাচ্যের অন্য যেকোনো দেশ সন্ত্রাসী বিরোধী যুদ্ধে সাহায্য চাইলে তেহরান তা দিতে পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। এ ছাড়া, ট্রাম্প এমন সময় ইরান ‘দুর্বল হয়ে পড়েছে’ বলে দাবি করলেন যখন মহাকাশ গবেষণায় চূড়ান্ত সাফল্য দেখিয়ে তেহরান গত বুধবার একটি কৃত্রিম সামরিক উপগ্রহ পৃথিবীর কক্ষপথে স্থাপন করেছে।

Related Articles

Back to top button
Close