fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মিত্রের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র করা মন্তব্য আইনত অপমানকর ? যুক্তি চাইল হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গত সপ্তাহেই সাংসদ বিধায়কদের বর্তমান ও বকেয়া মামলা নিষ্পত্তির জন্য বিশেষ বেঞ্চ গঠন করা হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের তরফে। তার পরপরই একাধিক মামলা দায়ের হয়েছে কলকাতা হাইকোর্টে। তার মধ্যে অন্যতম উল্লেখযোগ্য মামলা তৃণমূল সাংসদকে কটাক্ষ করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র করা মন্তব্যের প্রেক্ষিতে মামলা।
বছর দুই আগে বেসরকারি সর্বভারতীয় এক টেলিভিশন চ্যানেলে একটি টক শো চলাকালীন মহুয়া মিত্রকে উদ্দেশ্য করে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় অশালীন মন্তব্য করেছিলেন বলে তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন মহুয়া মিত্র। যে মামলা বিচারাধীন রয়েছে নিম্ন আদালতে।

আরও পড়ুন:কৃষি বিলের প্রতিবাদে আজ ভারত বনধ কৃষকদের, ধরনা বিক্ষোভে উত্তপ্ত পাঞ্জাব, হরিয়ানা-বাংলা…

এবার সেই মানহানির মামলা খারিজের আর্জি নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টের বিধায়ক সাংসদদের জন্য গঠিত বিশেষ বেঞ্চের দ্বারস্থ হন বাবুল সুপ্রিয়। তার আইনজীবী অয়ন ভট্টাচার্যের বক্তব্য, টিভিতে রোজই একাধিক রাজনৈতিক তরজা চলে। একাধিক রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গ এক এক বিরুদ্ধে এক এক রকম মন্তব্য করে। কিন্তু তা আইনতভাবে মানহানির পর্যায় পরে না।

তাঁর যুক্তি, কেউ কারোর বিরুদ্ধে একটা কথা বলল, সে ক্ষেত্রে ওই ব্যক্তির খারাপ লাগতে পারে। কিন্তু তা মানহানির পর্যায়ে পরে না। কারণ তার বিরুদ্ধে জনসমক্ষে বদনাম রটানো বা তাকে কলঙ্কিত বা সম্মানহানি করার মত বিষয় নয়।
এর পরিপ্রেক্ষিতে আদালত সব পক্ষের কাছে যুক্তি চায়, সাংসদের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী করা মন্তব্য মানহানি আইনের আওতায় পড়ে কিনা!

Related Articles

Back to top button
Close