fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

প্রত্যাখান! বিয়ের ঘটকালী নিয়ে বিবাদ, গুলি-বোমায় উত্তপ্ত ইসলামপুর, অভিযোগ পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার

দীপঙ্কর দে, ইসলামপুর: বিয়ের ঘটকালীর দড়দাম নিয়ে বচসা, ও বিয়েতে প্রত্যাখ্যানের জেরে গুলি, বোমাবাজিতে উত্তপ্ত  ইসলামপুর থানার চিটকুন মোড় বাজার এলাকা ঘটনায় গুরুতর জখম পাত্রপক্ষের পরিবারের তরফে ইসলামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হলেও পুলিশের বিরুদ্ধে নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। এদিকে অভিযুক্ত ঘটকের সঙ্গে যোগসাজশে স্থানীয় তৃণমূল নেতার সশস্ত্র হামলার প্রতিবাদে পুলিশী নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগে সরব খোদ তৃণমুল প্রধান। যদিও ঘটনার পেছনে কোনও রাজনৈতিক কারন নেই বলে গোবিন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমুল প্রধানের দাবী। ঘটনাটি নিছক ঘটকালী নিয়ে বিরোধ নাকি তৃণমূলের আভ্যন্তরীন দ্বন্দ্ব বিষয়টি এখনও পরিস্কার নয়।

জানা গিয়েছে, ইসলামপুর থানার গোবিন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাজুবস্তি এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ আলম তাঁর ছেলে সমীরুল আলমের বিয়ের জন্য ঘটক আমিরুলকে জানিয়েছিলেন। আমিরুল বিবাহের জন্য মেয়ে দেখেছিল তবে ঘটকালীর ৩৫ হাজার টাকা দাবী করলে মহম্মদ আলম বিয়েতে অরাজি হয়। দারিদ্রতার কারণেই এই বিপুল টাকা দিয়ে বিয়ে সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দেন মহম্মদ আলম। অভিযোগ,  এরপরই আমিরুল ও মাটিকুন্ডা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের ঝলঝলির বাসিন্দা তথা তৃণমুল নেতা কাশিম দলবল নিয়ে মহম্মদ আলমুকে চিটকুন মোড় বাজার এলাকায় আটকে ৫০ হাজার টাকা দাবী করার পাশাপাশি আলমুকে বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। কাশিমের স্ত্রী ববিতা বিবি মাটিকুন্ডা-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃনমুল সদস্যা। ঘটনার খবর পেয়ে আলমু’র তিন ছেলে তাঁকে বাঁচাতে গেলে আমিরুল ও কাশিম সহ তাঁদের লোকজন ব্যাপক বোমাবাজি ও গুলি চালায় বলে অভিযোগ। ঘটনায় আলমু সহ প্রায় ১০ জন জখম হয় বলে জানা গিয়েছে। জখমদের মধ্যে আলমু’র ছেলে সমীর আলম গুরুতর জখম হয়ে পড়ে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে ইসলামপুরের এক বেসরকারী নার্সিং হোমে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

Related Articles

Back to top button
Close