fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তিন তালাক রদ আন্দোলনের মুখ ইসরাত জাহান পরিজনের হাতে নিগৃহীতা, নিন্দায় সরব লকেট

শরণানন্দ দাস, মনোজ চক্রবর্তী,কলকাতা, হাওড়া: বাংলায় তিন তালাক রদ আন্দোলনের মুখ তিনি। বিজেপি নেত্রী হিসাবেও সমানভাবে পরিচিত। সেই ইশরাত জাহান নিজের বাড়িতেই নিগৃহীতা। আর এমন একটা দিনে ঘটনাটা ঘটলো যেদিন মোদি সরকারের তিন তালাক রদের বর্ষপূর্তি।  বিজেপির হুগলীর সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ঘটনার নিন্দায় সরব।
লকেট বলেন, ‘ তিন তালাকের বিরুদ্ধে যে পাঁচজন মহিলা প্রতিবাদী হয়েছিলেন ইসরাত তাঁদের অন্যতম। ও সাহসী মেয়ে, আমরা ওর পাশে, ছিলাম, আছি, থাকবো।’

 

বাংলা জুড়ে নারী নিরাপত্তা নিয়ে যখন বড়ো  মাপের কর্মসূচি নিচ্ছে বিজেপির মহিলা মোর্চা, তখন এই ধরনের ঘটনা স্বাভাবিক ভাবেই চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে। কেন্দ্রে মোদি সরকারের সংস্কার মূলক কাজের অন‌তম মাইল ফলক তিন তালাক রদ। আর বাংলায় তিন তালাকের বিরুদ্ধে অন্যতম প্রতিবাদী মুখ তিনি। হাওড়ার ইসরাত জাহান তিন তালাকের বিরোধিতা করেই খবরের‌ শিরোনামে এসেছিলেন। এদিন  স্বামীর উপস্থিতিতে ভাসুর তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করে বলেই অভিযোগ ইসরাতের। হাওড়ার গোলাবাড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তিনি। তবে এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।
কী ঘটেছিল এদিন? ইশরাত জাহানের দাবি, বৃহস্পতিবার বেলা বারোটা নাগাদ হাওড়ার পিলখানায় নিজের বাড়িতে ছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় স্বামীর উপস্থিতিতে ভাসুর তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। স্বামী তাতে বাধা দেয়নি বলেও তিনি অভিযোগ করেছেন। ইশরাত জাহানের আরও অভিযোগ, স্বামী এবং ভাসুর মিলে তাঁকে মারধরও করেন। এমনকী তাঁর পোশাকও ছিঁড়ে দেওয়া হয়।’

তবে এই প্রথমবার এমন ঘটলো এমন নয়। এর আগেও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে অত্যাচারের অভিযোগ করেছিলেন ইশরাত জাহান। কেন বারবার তিনি আক্রান্ত হচ্ছেন? তিন তালাকের বিরোধিতা করেছিলেন বলে? গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন বলে? বিজেপির মহিলা মোর্চার প্রাক্তন সভানেত্রী লকেট চট্টোপাধ্যায় অবশ্যই এটা একটা কারণ বলে মনে করেন। পাশাপাশি তাঁর অভিযোগের আঙুল মুখ্যমন্ত্রীর দিকেও। তিনি মনে করিয়ে দেন, ‘ তিন তালাক রদের বিরোধিতা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর তিনি চান না ইসরাতদের মতো প্রতিবাদী মুখ মুসলিম মহিলাদের মধ্যে থেকে বেরিয়ে আসুক। দুঃখের বিষয় আজকের মতো একটা ঐতিহাসিক দিনে ইসরাতকে নির্যাতিত হতে হলো। মুখ্যমন্ত্রীর নিকৃষ্ট তুষ্টি করণের রাজনীতি, মুসলিম ভোটব্যাঙ্কের জন্য মহিলাদের সুরক্ষাকে জলাঞ্জলি দেওয়ার ফলে এমন ঘটনা ঘটলো। সত্যি নিন্দা করার ভাষা নেই।’

 

নিজের বাড়িতে নির্যাতন সহ্য করে অন্যায়কে প্রশ্রয় দেওয়ার পাত্রী ইসরাত নন । তাই কাছেই গোলাবাড়ি থানার দ্বারস্থ হন বিজেপি নেত্রী। সেখানে স্বামী, ভাসুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। বিজেপি নেত্রী তথা তিন তালাক রদ আন্দলনের অন্যতম মুখের উপর হামলার অভিযোগ পাওয়মাত্রই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। তবে এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।

Related Articles

Back to top button
Close