fbpx
দেশবিজ্ঞান-প্রযুক্তিহেডলাইন

ভারতীয় স্পেস প্রোগ্রামের জনক বিক্রম সারাভাইয়ের নামে চাঁদের ক্রেটারের নামকরণ করতে চলেছে ISRO

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র ইসরো এবা রচাঁদের ক্রেটারের ভারতীয় স্পেস প্রোগ্রামের জনক বিক্রম সারাভাইয়ের নামেই নামকরণ করতে চলেছে। উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ইসরো চাঁদে পাঠায় চন্দ্রযান ২। চাঁদের মাটিতে অবতরণের (সফট ল্যান্ডিং) সময়ে চন্দ্রযান ২-এর অরবিটারের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় ল্যান্ডার বিক্রমের। চাঁদের মাটি থেকে ২.১ কিলোমিটার ওপরে সংকেত পাঠানো বন্ধ হয়ে যায় বলে জানা যায়। এরপর থেকেই তোলপাড় পড়ে যায় সারা দেশে। তবে আশা ছাড়েননি ইসরো-র বিজ্ঞানীরা।

সম্প্রতি ISRO-র তরফে জানানো হয়েছে চন্দ্রযান ২ চাঁদের মাটি থেকে ছবি পাঠিয়েছে এবং সেখানকার একটি ক্রেটারের নামকরণ করা হয়েছে ভারতীয় স্পেস প্রোগ্রামের জনক বিক্রম সারাভাইয়ের নামে। শুক্রবার একটি বিবৃতি এমনটাই জানানো হয়েছে ISRO-র তরফে।

আরও পড়ুন: স্বাধীনতা সংগ্রামীদের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামকে শ্রদ্ধা জানিয়ে শহিদ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হল মেডেল

প্রধানমন্ত্রীর দফতরের মিনিস্টার অফ স্টেট জিতেন্দ্র সিং জানিয়েছেন, ১২ অগস্ট বিক্রম সারাভাইয়ের জন্ম শতবার্ষিকী ছিল। তাঁর মতো মহান বিজ্ঞানীকে এভাবেই দেশ শ্রদ্ধা জানাতে চায়। তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি ISRO-র যে সব সাফল্য ভারতকে বিশ্বের মানচিত্রে এক বিশেষ আসনে প্রতিষ্ঠিত করেছে, সেই স্বপ্ন পূরণ শুরু হয়েছিল বিক্রম সারাভাইয়ের হাত ধরেই।

 

উল্লেখ্য, সারাভাই ক্রেটারের 3D ছবি পাওয়া গিয়েছে। এই ক্রেটারের গভীরতা ১.৭ কিমি এবং দেওয়ালের ঢাল ২৫ থেকে ৩৫ ডিগ্রি। এই সব তথ্য বিজ্ঞানীদের সাহায্য করবে চাঁদের মাটিতে লাভার উপস্থিতি। বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, চন্দ্রযান ২ ডিজাইন অনুযায়ীই কাজ করছে এবং গুরুত্বপূর্ণ বৈজ্ঞানিক তথ্য সরবরাহ করছে। চন্দ্রযান ২ থেকে পাওয়া সব তথ্য সাধারণ মানুষের সামনে তুলে ধরা হবে ২০২০ সালের অক্টোবর মাস থেকে।

Related Articles

Back to top button
Close