fbpx
দেশবিনোদনহেডলাইন

চলচ্চিত্র জগতকে শেষ করে চক্রান্তকে বরদাস্ত করা হবে না, হুঁশিয়ারি উদ্ধব ঠাকরের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউড নিয়ে এবার সরব হলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিলেন, যাঁরা চেষ্টা করছেন হিন্দি চলচ্চিত্র জগতকে শেষ করে দিতে কিংবা মুম্বই থেকে একে সরিয়ে নিয়ে যেতে, তাদের এই অসাধু উদ্দেশ্যকে কোনওভাবেই মেনে নেওয়া হবে না।

 

উল্লেখ্য, গত ১৪ জুন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু হয়। এরপর থেকেই বলিউড নিয়ে কাটাছেঁড়া শুরু হয়েছে। বিভিন্ন বিতর্কে জড়িয়েছে একাধিক তারকার নাম। তদন্তে নেমেছে সিবিআই, নার্কোটিকস কনট্রোল ব্যুরো এবং এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টোরেটের মতো একাধিক কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। আর এই সব কিছুর মধ্যে বারবার ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে বলিউডকে। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের দফতর থেকে জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে শেষ করে দেওয়া অথবা সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার যে চক্রান্ত চলছে, তা সহ্য করা হবে না।’

 

তিনি আরও বলেন, মুম্বই শুধুমাত্র দেশের অর্থনৈতিক রাজধানীই নয়, বিনোদন রাজধানীও বটে। ‘সারা দুনিয়ায় বলিউডের কদর রয়েছে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি অসংখ্য মানুষের রোজগারের জায়গা। গত কয়েকদিনে নানা ভাবে চেষ্টা করা হয়েছে কিছু স্তর থেকে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সুনাম খারাপ করার। এটা খুবই বেদনাদায়ক।’ উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেই উত্তর প্রদেশের যোগী সরকার ঘোষণা করেছে নয়ডা বিশাল আয়তনের ফিল্ম সিটি তৈরির করার, যাতে চলচ্চিত্র নির্মাতা ও পরিচালকদের পক্ষে লোকেশন বাছাইয়ে আরও সুবিধে হয়।

 

সিনেমা এবং মাল্টিপ্লেক্স মালিকদের সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে জানিয়েছেন, রাজ্যের সংস্কৃতি দফতর একটি স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর তৈরি করেছে, যার ভিত্তিতেই প্রায় ৬ মাস পরে মহারাষ্ট্রের সিনেমা হল খোলার প্রস্তুতি নেওয়া হবে। এসওপি তৈরি হলেই সিনেমা হল খুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছেন ঠাকরে। তিনি বলেন, ‘সরকার এ বিষয়ে খুবই আশাবাদী। রাজ্যের অর্থনীতি ফের চাঙ্গা করার ক্ষেত্রে এক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বিনোদন ইন্ডাস্ট্রি। ফলে সরকার এর বন্ধ চাকা দ্রুত চালু করার সবরকম চেষ্টা করছে।’

Related Articles

Back to top button
Close