fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বৃদ্ধ বাবাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিনিধি, মালদা: ফের সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বৃদ্ধ বাবাকে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ উঠলো ছেলের বিরুদ্ধে। ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ৭৫ বছর বয়সী বৃদ্ধ প্রভুরাম মন্ডল। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে ইংরেজবাজার থানার যদুপুর এলাকায়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, যদুপুর এলাকার বাসিন্দা বৃদ্ধ প্রভুরাম মন্ডল ও তার স্ত্রী কুসমি মন্ডল বসবাস করে। তাদের দুই ছেলে। বড় ছেলে অরুন মন্ডল। তিনি ইংরেজবাজার সাগরদিঘী এলাকায় বাড়ি করে বসবাস করেন। অন্যদিকে ছোট ছেলে বিশ্বজিৎ মন্ডল নিজের বাড়িতে থাকলেও সে বৃদ্ধ বাবা-মা থেকে আলাদা থাকে।

বৃদ্ধ প্রভুরাম মন্ডলের অভিযোগ, তার ছোট ছেলে বিশ্বজিৎ মন্ডল তাদের দেখে না। চিকিৎসা খরচ দেয় না। খাওয়া-দাওয়াও দেয় না। ফলে বৃদ্ধ প্রভুরাম মন্ডল তার একটি গরু দুধ বিক্রি করে রোজগার করেন। তাদের স্বামী স্ত্রীর কোনরকম চলে যায়। ছোট ছেলে বাড়িতে থাকলেও তার বৃদ্ধ বাবা-মাকে প্রায় দিনই মারধর করে বলে অভিযোগ। মঙ্গলবার সকালে বাড়ির সামনে গোরু বাঁধা নিয়ে বিবাদের জেরে ছোট ছেলে বিশ্বজিৎ মন্ডল তার বৃদ্ধ বাবাকে ব্যাপক মারধর করে বলে অভিযোগ। এরপরই বৃদ্ধ বাবা ওই ছেলের নামে ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন। বৃদ্ধ প্রভুরাম মন্ডল বলেন, তার জায়গায় তার ছোট ছেলে গরু বেঁধেছিলো এবং সেটাই আপত্তি করেছিলেন তিনি। যার ফলে ছেলে তাকে মারধর করে।

বৃদ্ধ প্রভু রাম মন্ডল আরও জানান, ছোট ছেলের অত্যাচারের ভয় বৃদ্ধা স্ত্রীকে নিয়ে তিনি আতঙ্কে আছেন। ছোট ছেলে এবং তার স্ত্রী তাদেরকে বাড়িছাড়া করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছে এদিন মারধর করে তাড়িয়ে দিয়েছে। পুলিশকে জানানো হয়েছে।

যদিও এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে অভিযুক্ত বিশ্বজিৎ মন্ডলের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। ইংরেজবাজার থানার পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

Related Articles

Back to top button
Close