fbpx
কলকাতাহেডলাইন

লকডাউনে মুশকিল আসান যাদবপুর

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: রাজ্যে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। ইতিমধ্যেই সোমবার রাজ্যে করোনার বলি হয়েছেন দমদমের প্রৌঢ়। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে রাজ্যে সোমবার বিকেল ৫ টা থেকে চালু হয়েছে লক ডাউন। ২৭ তারিখ মধ্যরাতের পর লক ডাউনের সময়সীমা বাড়বে কী না ঠিক করবে প্রশাসন। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে কারও আপৎকালীন পরিস্থিতি তৈরি  হলে কী হবে? কেউ যদি হঠাৎ অসুস্থ হন বা কোন দুর্ঘটনা ঘটে! মুশকিল আসান যাদবপুরের প্রবীণ সমাজসেবী গোবিন্দ দাস।

আরও পড়ুন: করোনার জের, ২৬ মার্চের রাজ্যসভা নির্বাচন স্থগিত : নির্বাচন কমিশন

এদিন তিনি বলেন,’ আমরা একটা চেন সিস্টেম তৈরি করেছি। যাদবপুর ব্যবসায়ী সমিতি, কসবা সমন্বয়, রাজডাঙা ক্লাব সমন্বয়। লক ডাউনের সময় কাউকে প্রয়োজনীয় ওষুধ পৌঁছে দেওয়া কিম্বা হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য আমাদের ছেলেরা তৈরি।’ তিন আরও জানালেন কারও খাবার প্রয়োজন হলে চিড়ে, মুড়ি মজুতের ব্যবস্থা করেছি। প্রয়োজনে খিচুড়ি রান্না করে পৌঁছে দেব।’ গোবিন্দ বাবু বলেন, ‘ আমাদের ছেলেরা মহল্লায় গিয়ে করোনা সচেতনতার প্রচার করছে, মাস্ক,হ্যান্ড স্যানেটাইজার বিতরণ করছে। লক ডাউন পর্ব শেষ হলে আমরা ব্লাড ব্যাঙ্কে গিয়ে রক্ত দেব।’ এ শহর জানান দিল নবকুমাররা আজও আছে।

Related Articles

Back to top button
Close