fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জামালদহ বাজার যেন নরককুন্ড! সংস্কারের দাবি

মেখলিগঞ্জঃ মেখলিগঞ্জের গুরুত্বপূর্ণ বাজার গুলির মধ্যে অন্যতম একটি জামালদহ বাজার। কিন্তু এই জামালদহ বাজার নানান সমস্যায় জর্জরিত। একদিকে মাকড়সার জালের মতো ছড়িয়ে রয়েছে বিদ্যুতের তার, অন্যদিকে অপরিকল্পিত ভাবে যেখানে সেখানে গড়ে উঠেছে দোকানপাট। বাজারে নেই কোনও জলের আধার। ফলে বাজারের কোথাও আগুন লাগলে আগুন নেভানোর মতো কোনও উপায় খুঁজে পাওয়া যাবে না। ওয়াকিবহালের মতে জামালদহ বাজার নরককুন্ডে পরিনত হয়েছে।

 

 

সম্প্রতি দীর্ঘ দিনের দাবি মতো বিধায়ক তহবিলের টাকায় বাজারের তিন শতাংশ অংশে গলি পাকা হয়েছে। বাকি অংশে যে সমস্যা সেই সমস্যাই রয়ে গেছে। বাজারে গলি পাকা হলেও বাজারের যত্রতত্র গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। সেগুলিতে বৃষ্টির জল ও নোংরা আবর্জনা জমে এক ভয়ংকর পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। তার ওপর সেগুলিতে মশার বাড় বাড়ন্তে এক নারকীয় পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে।

 

 

ফলে জামালদহ বাজার ক্রমশঃ মশার আঁতুড় ঘরে পরিনত হয়েছে। সেগুলি থেকে এতটাই দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে, কি ক্রেতা কি বিক্রেতা সকলে হাফিয়ে উঠছে। দোকান গুলিতে ক্রমশঃ কমতে শুরু করেছে ক্রেতার সংখ্যা। মুখে রুমাল চাপা দিয়ে দোকানদার ও ক্রেতারা কোনওরকমে কেনা বেচা করছে। অন্যদিকে সামান্য বৃষ্টিতে বাজারের সর্বত্র জল দাঁড়িয়ে পড়ছে। নিকাশী নালা না থাকার দরুন বৃষ্টির জল বেড়িয়ে যেতে পারছেনা। সব কিছু মিলে এক অব্যাবস্থার চরম নিদর্শন হিসাবে জামালদহ বাজার বিরাজ করছে। সংস্কারের দাবি উঠছে বার বার। আশ্বাস মিলছে, কাজের কাজ কিছু হচ্ছে না বলে অভিযোগ।

 

 

যদিও জামালদহ ব্যাবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকে বিষয়গুলি সংশ্লিষ্ট দপ্তরে অবগত করা হয়েছে। দ্রুত সমস্যার সমাধানে আশ্বাস মিলেছে বলে জানা গিয়েছে। জামালদহ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান গীতা বর্মন জানিয়েছেন, জামালদহ বাজার মেখলিগঞ্জ পঞ্চায়েত সমিতির অধীনে রয়েছে। যা করনীয় পঞ্চায়েত সমিতিই করবে। গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে করনীয় কিছু নেই।

Related Articles

Back to top button
Close