fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মোমবাতি জ্বালিয়ে উত্তরপ্রদেশের হাথরসের ঘটনার প্রতিবাদ জানালেন জামালপুরবাসী

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান : উত্তরপ্রদেশের হাথরসের ঘটনার প্রতিবাদের ঢেউ এবার পশ্চিমবঙ্গেও অছড়ে পড়লো । শুক্রবার সন্ধ্যায় পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের বহু মহিলা পুরুষ ও জনপ্রতিনিধি মোমবাতি হাতে পথে নেমে প্রতিবাদ জানান ।

তারা নরেদ্র মোদি ও যোগী আদিত্যনাথের পদত্যাগের দাবিতে শ্লোগান তোলেন । মোমবাতি জ্বালিয়ে এদিনের প্রতিবাদ বিক্ষোভের নেতৃত্ব দেন জামালপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান ও কর্মাধ্যক্ষ ভূতনাথ মালিক ।

নির্যাতিতার পরিবারের হয়ে ন্যায় বিচারের দাবিতে এই জামালপুরবাসীর এহেন প্রতিবাদ জনমানসে সাড়া ফেলে দেয় ।

পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি মেহেমুদ খান বলেন , বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশে জঙ্গলরাজ চলছে । উত্তরপ্রদেশে মহিলারা সুরক্ষিত নন । নির্ভয়া কাণ্ডের থেকেও ঘৃণ্য গণধর্ষণ কাণ্ড ঘটেছে হাথরসে । মৃত্যুর পরেও নির্যাতিতাকে রেহাই দেয়নি উত্তরপ্রদেশ পুলিশ
ও প্রশাসন । পরিবারকে পুলিশ বন্দি করে রেখে তার দেহ জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে । গোটা ঘটনা ধামাচাপা দেবার জন্য যোগী সরকার নির্যাতিতার পরিবার ও সাংবাদ মাধ্যমের উপর এখনও রাষ্ট্রিয় সন্ত্রাস চালাচ্ছে।

তৃণমূলের সাংসদ প্রতিনিধিদেরকেও এদিন নির্যাতিতার বড়িতে যেতে দেওয়া হয়নি । উত্তরপ্রদেশ পুলিশ বলপ্রয়োগ করে সাংসদদের হাথরস ছাড়তে বাধ্যকরে ।এই সমস্ত অগনতান্ত্রিক ও ঘৃন্য ঘটনার প্রতিবাদে গোটা দেশের পাশাপাশি জামালপুরের মানুষজনও প্রতিবাদে স্বোচ্চার হয়েছেন । কর্মাধ্যক্ষ ভূতনাথ মালিক বলেন , যোগী সরকার আদতে রেপিস্টদের আড়াল করতে চাইছে । এদিন মোমবাতি জ্বালিয়ে প্রতিবাদের সূচনা হল । শনিবার শুরু হবে যোগী ও মোদির বিরোধী আরও বৃহত্তর আন্দোলন ।

Related Articles

Back to top button
Close