fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিধানসভা ভোটের আগে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর জনপ্রিয়তা বাড়ানোর চেষ্টা! ১৬ লক্ষ সদস্য করতে কর্মসূচি জমিয়তের

মোকতার হোসেন মন্ডল: ১৬ লক্ষ সদস্য করতে বিশেষ কর্মসূচি নিয়েছে রাজ্য জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ। আগামী ২০২১ বিধানসভা ভোটের আগে এই উদ্যোগ বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন ওয়াকিবহাল মহল।

রাজ্য জমিয়তের সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম জানান, ওয়ার্কিং কমিটিতে সিদ্ধান্ত হয়েছে সাংগঠনিক শক্তি বাড়াতে হবে। রাজ্যে ১৬ লক্ষ সদস্য সংগ্রহের লক্ষ্য মাত্রা নেওয়া হয়েছে। আমাদের বিশ্বাস, আরও বেশি হবে। কিন্তু ঠিক বিধানসভা নির্বাচনের আগেই কেন জমিয়তের সদস্য সংগ্রহের এই অভিযান?

অনেকে মনে করছেন, একুশের নির্বাচনের আগে জমিয়ত সভাপতি তথা রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরীর সাংগঠনিক প্রভাব বাড়াতেই এমন উদ্যোগ। যদিও জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের নেতারা বলছেন, এটা একেবারে সাংগঠনিক সিদ্ধান্ত। সংগঠনের সদস্য বাড়ানোর মধ্যে কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নেই।

[আরও পড়ুন- ‘পুজোয় এবার খোলা প্যান্ডেল’, দুর্গাপুজো কমিটিগুলিকে পরামর্শ মমতার]

তবে রাজ্যের একদা প্রভাবশালী মুসলিম নেতা তৃণমূল কংগ্রেসের টিকিটে ভোটে দাঁড়ানোর পর বিতর্ক বেড়েছে। মুসলিম সমাজের অনেকে প্রশ্ন করেছেন, মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ সংখ্যালঘু সমাজের জন্য এই পাঁচ বছরে কী কাজ করেছেন? বরং জমিয়তের ব্যানারেই তিনি সরকারের বিভিন্ন ইস্যুতে সরব হয়েছেন বেশি।

এই পরিস্থিতিতে আগামী নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিটে সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী ভোটে দাঁড়াবেন কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। জমিয়তের রাজ্য সম্পাদক মুফতি আব্দুস সালাম বলছেন, আমরা ভালো মন্দ সব দিক ভেবে দেখেই সিদ্ধান্ত নেব। ইতিমধ্যেই একটা কমিটি তৈরি হয়েছে, সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সংগঠন, সমাজের জন্য যেটা ভালো হবে সেটাই সিদ্ধান্ত হবে।

তবে জমিয়ত নেতৃত্ব চাইছে, সাংগঠনিক শক্তি বাড়াতে। কেননা, শতাব্দী প্রাচীন এই সংগঠনটির সঙ্গে এদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস জড়িয়ে আছে। তাই রাজনৈতিক কারণে নিজেদের সংগঠনের জমি হারাতে চাইছেন না তারা।

 

Related Articles

Back to top button
Close