fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

‘শত্রুর শত্রু বন্ধু’, ভারতের শক্তি-সামর্থ্যে সমর্থন, চিনের বিরুদ্ধে সরব জাপ মিডিয়া

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: শত্রুর শত্রু বন্ধু। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বোস এর আপ্তবাক্য মেনে সেই নীতিতেই এবার চিনের বিরুদ্ধে ভারতের সমর্থনে পা বাড়ালো জাপানিজ মিডিয়া। মনে রাখা দরকার যখন কোন দুটি দেশের মধ্যে যুদ্ধের পরিস্থিতি তৈরি হয় তখন সেই দুটি দেশের সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংবাদমাধ্যমও সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে স্বাভাবিকভাবেই। সেই কূটনীতিকে সামনে রেখেই এবার মুখ খুলল জাপান। যা আন্তর্জাতিক মহলেে যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। ঠিক কি বলেছেন জাপানিজ মিডিয়া? আসুন দেখে নেওয়া যাক।

জাপ মিডিয়ার কথায়, চিন বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার পর এখন বিস্তারবাদী নীতির উপর জোর দিতে শুরু করেছে। নেপালের নেতাদের লোভের জালে ফাঁসিয়ে পুরো নেপালকে তিব্বতের মতো করে গিলে নেওয়ার জন্য প্রক্রিয়া জারি রেখেছে চিন। একইসাথে সীমান্তে ভারতের সাথেও সংঘর্ষে লেগে পড়েছে। শুধু এই নয়, জাপানের সেনকাকু দ্বীপকেও নিজের দখলে আনার চেষ্টায় দ্বন্দ্বে জড়িয়েছে চাইনিজরা।

জাপানের মিডিয়া স্পষ্ট শব্দে লিখেছে, ভারতীয়দের উচিত তিব্বত, জিনজিয়াং ইস্যুগুলিকে বার বার তুলে ধরা। সোজা ভাষায় চিন ৪ টি দেশের জমি কবজা করে এত বৃহৎ আকারে পরিণত হয়েছে। চিন ৫ টি দেশের সমষ্টি। একমাত্র ‘হান চায়না’ চিনের নিজের জায়গায়, বাকি পুরোটাই অন্য দেশ দখল করে রাখা জায়গায়। এই কারণে তিব্বত, জিনজিয়াং বার বার আলাদা দেশ হওয়ার দাবি জানায়।

জাপানের মিডিয়া বলেছে, ভারতের উচিত এই ইস্যুকে আরো তীব্র করার উপর জোর দেওয়া। জাপানের মিডিয়া দাবি করেছে, ভারতের শক্তি ও সামর্থ্য দুই রয়েছে, শুধু তার উপর ফোকাস করার প্রয়োজন আছে। এক কথায় জাপান ভারতীয়দের সংঘবদ্ধ হওয়ার ও সৈনিকদের মনোবল বৃদ্ধি করার জন্য পরামর্শ দিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close