fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

মুখ্যমন্ত্রী কোটার জমিতে তৈরি সৌরভ গাঙ্গুলী একাডেমিতে ব্রাত্য আর্থিকভাবে পিছিয়ে-রা, মুখ্যমন্ত্রীকে চিঠি জয়দীপের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: “সল্টলেকে মুখ্যমন্ত্রী কোটায় প্রাপ্ত জমি নিয়ে দ্বিচারিতা চলছে”। বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অল ইন্ডিয়া লিগাল এড ফোরামের সাধারণ সম্পাদক তথা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। রবিবার এক সাক্ষাৎকারে জয়দীপ বাবু বলেন, ‘বাম আমলে সল্টলেক ও নিউটাউনে , ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলীকে বিশাল পরিমাণ জমি দেওয়া হয়েছিল তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রীর কোটা থেকে, সেই জমিতে সৌরভ গাঙ্গুলী কি করেছেন? কত জন গরিব ছেলে তার ক্রিকেট একাডেমিতে বিনা মূল্যে ক্রিকেট খেলার বা শেখার সুযোগ পেয়েছেন? অথচ মুখ্যমন্ত্রী কোটায় জমিগুলি হস্তান্তরিত বা কমার্শিয়াল কাজে ব্যবহার করা যাবে না। তবে কেন অবৈতনিক ভাবে গরিব ছেলে মেয়েদের এখানে শেখার সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে না।’ আর তাই এ বিষয়ে সঠিক তথ্য জানতে চেয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কাছে চিঠি দিলেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী কোটার জমিতে তৈরি সল্টলেকের সৌরভ গাঙ্গুলী একাডেমিতে ব্রাত্য আর্থিকভাবে পিছিয়ে পড়া ছেলে মেয়েরা।
যদিও শুরু থেকেই নানা বিবাদের মুখে পড়েছে মুখ্যমন্ত্রী কোটায় সল্টলেকের জমি। এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্টে একাধিক অস্বচ্ছতার অভিযোগ উঠেছিল এর আগে।
মুখ্যমন্ত্রী কোথায় পাওয়া সল্টলেকের জমি সম্পর্কে আইনজীবী জয়দীপ বাবু আরও বলেন, ‘সল্টলেক জমি কেলেঙ্কারি ও জমি বন্টনের অস্বচ্ছতার অভিযোগে মহামান্য সুপ্রিমকোর্ট ২০০৪ সালে প্রাক্তন বিচারপতিকে তার সল্টলেকের বাড়ি ছাড়া করে। মহামান্য সুপ্রিমকোর্ট রায় দানে বলেছিলেন সল্টলেক জমি বন্টনে কোন প্রকার অস্বচ্ছতা বরদাস্ত করা হবে না । আমার প্রশ্ন আমি এই প্রশ্ন গুলির উত্তর চাই , সল্টলেকের জমি বন্টন সৌরভ গাঙ্গুলী কে করে রাজ্যের ও দেশের কি লাভ হয়েছে ? এর উত্তর গুলি জানা ভীষণ ভাবে প্রয়োজন।’

Related Articles

Back to top button
Close