fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আজ থেকে শুরু হল অন লাইনে জয়েন্ট এন্ট্রানস, আইআইটি ও নীটের ক্লাস

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ি বয়েজ হাই স্কুলের শতবর্ষ উপলক্ষ্যে স্কুলটিকে একটি আদর্শ স্কুলে পরিণত করতে ঢেলে সাজানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব শুক্রবার শিলিগুড়ি বয়েজ হাই স্কুলে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে পরিকল্পনাগুলির কথা জানান।
শিলিগুড়ি বয়েজ হাই স্কুল একটি অতি পরিচিত নাম। বহু কৃতি ছাত্র জন্ম নিয়েছে এই স্কুলের মাধ্যমে। চিফ জাস্টিস, বিজ্ঞানী, মেয়র,  মন্ত্রী থেকে শুরু করে দেশে বিদেশে সুনামের সাথে চাকরী করে চলেছে বহু কৃতি। এমন কি পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব নিজে দ্বিতীয় শ্রেণী থেকে একাদশ শ্রেনী পর্যন্ত পড়াশুনা করেছেন। বর্তমানে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির দায়িত্বে রয়েছেন তিনি। তিনি জানান যদি তিনি দুবছর সময় পান তাহলে এই স্কুলকে একটি আদর্শ স্কুলে পরিণত করবেন তিনি। যা অনুসরন করবে অন্যান্য স্কুলগুলো। স্বনামধন্য এই স্কুলটি যদিও পরবর্তীতে একটা খারাপ অবস্থায় চলে গিয়েছিল। স্কুলের শৃংখলা তলানিতে চলে গিয়েছিল। স্কুলের সুনাম আস্তে আস্তে স্থিমিত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি স্কুলটি শতবর্ষ পাড় করল। এই শতবর্ষ উপলক্ষ্যে স্কুলের হৃতগৌরব ফিরিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর মন্ত্রী।
স্কুলটিকে একেবারে বেসরকারী নামি স্কুলের রূপ ফুটিয়ে তুলতে চান তিনি। তিনি জানান একাদশ শ্রেণির বিজ্ঞানের ছাত্রদের  জন্য জয়েন্ট এন্টান্স, আইআইটি ও নীটের কোচিং ক্লাস আজ থেকে অনলাইনে শুরু হবে। কোভিড চলে গেলে নিয়মিত ক্লাসের মাধ্যমে টীচাররা রুটিন তৈরী করে বাছাই করা ছাত্রদের প্রশিক্ষণ দেবে। এছাড়া বানিজ্য ও কলা বিভাগের ছাত্রদের চাকরীর ক্ষেত্রে  বিভিন্ন কমপিটেটিভ পরীক্ষার জন্যও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। চাকরীর ক্ষেত্রে ছাত্রদের কাউন্সেলিং সহ  ছোটদের জন্য অ্যাবাকাশ ক্লাসও দ্রুত শুরু করা হবে। এছাড়া খেলাধুলার দিকেও ছাত্রদের মনোনিবেশ করতে ফুটবল ও ক্রিকেট টীম তৈরী  সহ এনসিসি করার কথা বলেন। ইতিমধ্যে স্কুলে সিসিক্যামেরা ও সোলার সিস্টেম চালু করা হয়েছে।
এদিকে স্কুল খোলার পর ছাত্র ও শিক্ষকদের নিয়মিত উপস্থিত থাকতে হবে বলেও সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়েছে। অনুপস্থিতর যথাযথ কারণ দেখাতে হবে। ধারাবাহিকভাবে পড়ুয়ারা অনুপস্থিত থাকলে তাদের টিসি দেওয়া হবে। টিফিনের সময় যাতে ছাত্ররা স্কুল পালাতে না পারে সে কারনে টিফিনের পর ফের অ্যাটেন্ডেন্স নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।  পড়ুয়াদের একটা কঠোর নিয়মানুবর্তিতা মধ্যে এনে শৃংখলাবদ্ধ করতেই এই উদ্যোগ। তবে এই সমস্ত সিদ্ধান্তগুলি এক এক করে কার্যকরী করা হবে বলে জানান তিনি। এছাড়াও স্কুলে নতুন ভবন সহ আরও একাধিক পরিকল্পনার কথা জানান গৌতম দেব। যদিও তা সময়সাপেক্ষ বলে তার মত।

Related Articles

Back to top button
Close