fbpx
দেশহেডলাইন

একুশের জরুরী বৈঠকে আমন্ত্রণ, নাড্ডার ডাকে দিল্লি গেলেন রাহুল সিনহা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শেষ পর্যন্ত ১ অক্টোবর পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে দিল্লির বৈঠকে ডাক পেলেন সদ্য প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা। বুধবার তিনি বলেন, ‘নাড্ডাজি ডেকে পাঠিয়েছেন, তাই দিল্লি যাচ্ছি।’ এদিন বিকেলে দমদম বিমানবন্দর থেকে দিল্লির বিমান ধরলেন রাহুল। বিমান বন্দরে বহু কর্মী সমর্থক তাঁকে স্বাগত জানান। আপ্লুত রাহুল বলেন, ‘ আপনাদের আশীর্বাদ নিয়ে দিল্লি যাচ্ছি।’

ঘটনা হলো সদ্য দলের সর্বভারতীয় স্তরে রদবদল হয়। বাংলা থেকে মুকুল রায় সর্বভারতীয় সহসভাপতি, অনুপম হাজরা কেন্দ্রীয় সম্পাদকের পদ পেলেও বাদ পড়েন রাহুল সিনহা। ক্ষুব্ধ রাহুল সিনহা বলেন, ‘ ৪০ বছর বিজেপি করার এটাই পুরস্কার। তৃণমূল নেতা এসে পদ নিয়ে চলে যাচ্ছে।’ রাহুল সিনহার ক্ষোভ প্রশমনের জন্য দুই কেন্দ্রীয় নেতা অরবিন্দ মেনন, শিবপ্রকাশ তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। সূত্রের খবর, শিবপ্রকাশ তাঁর সঙ্গে বৈঠক করেন, তাঁকে দিল্লির বৈঠকে যোগ দিতে বলেন। মুকুল রায়ও বলেছেন, ‘ রাহুল বাংলার মুখ। দীর্ঘ দিন রাজনীতি করছে। বিজেপিতে ওর অবদান এক লাইনে ‌‌বলা যাবে না।’

শেষপর্যন্ত কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ডাকে রাহুল দিল্লি গেলেন। রাজনৈতিক মহল কৌতুহলী রাহুল সিনহাকে কীভাবে একুশের যুদ্ধে কাজে লাগায় গেরুয়া শিবিরের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। তবে এটা স্পষ্ট রাহুলের মতো পুরনো নেতার ক্ষোভের সুযোগ তৃণমূল কাজে লাগাক নিশ্চিত ভাবেই চাইছে না গেরুয়া শিবির। তাই পশ্চিমবঙ্গ নিয়ে বৈঠকে রাহুলকে ডেকে একটা ইতিবাচক বার্তা দেওয়া হলো মনে করছে তথ্যাভিঞ্জ মহল।

Related Articles

Back to top button
Close