fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জ্যোতিবাবুও বাংলা ভাগ চেয়েছিলেন, দাবি বঙ্গ বিজেপির

রক্তিম দাশ, কলকাতা: স্বাধীনতার ৭৩ বছর পর বাংলা ভাগ নিয়ে শুরু হল নতুন বির্তক। বঙ্গ বিজেপি দাবি করল, বাংলা ভাগ করে পশ্চিমবঙ্গ গঠনের দাবি শুধু তৎকালিন হিন্দু মহসভার নেতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় নন সেই সময় জ্যোতি বসুর নেতৃত্বে কমিউনিস্ট পার্টিও চেয়েছিল! শনিবার বঙ্গ বিজেপির উদ্বাস্তু সেলের পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গ দিবসের সভায় এই দাবি জানিয়ে তাঁরা বামপন্থীদের বাংলাভাগের ইতিহাস পড়ে দেখার পরামর্শ দিয়েছেন।

দীর্ঘদিন ধরেই ভারতের স্বাধীনতার পর বাংলা ভাগের জন্য ভারত কেশরি শ্যামাপ্রসাদকেই দায়ি করে থাকেন বামপন্থীরা। বলা হয়, তাঁর সাম্প্রদায়িক মনোভাবের কারণে বাংলা দ্বিখন্ডিত হয়েছে।

কমিউনিস্টদের এই বক্তব্যেও কোনও ঐতিহাসিক সারবর্তা নেই বলে দাবি করে এদিন বিজেপির উদ্বাস্ত সেলের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোহিত রায় বলেন, ‘১৯৪৬ এর কলকাতা দাঙ্গা এবং এরপরেই নোয়খালিতে হিন্দুদের গণহত্যার পর বাংলার দু’তিন জন নেতা ছাড়া আর কেউ যুক্ত বঙ্গের কথা ভাবতে পারেননি। যুক্ত বাংলার সংখ্যাগরিষ্ট মুসলমানদের ৫৫ শতাংশই পাকিস্তানের পক্ষে ছিলেন। তাই যুক্ত বাংলা হলে তা যে পরবর্তীতে জিন্নার কূটনীতিতে পাকিস্তানে যুক্ত হবে তা শ্যামপ্রসাদ সহ তৎকালিন বাংলার কংগ্রেস নেতারা সহ বামপন্থীরাও বুঝেছিল। তাই সবাই একযোগেই পশ্চিমবঙ্গ গঠনের পক্ষে ছিলেন।’

মোহিতবাবু বলেন, ‘ঘটনার সত্যতা জানতে হলে বিধানসভার আর্কাইভ ঘাঁটলেই পাওয়া যাবে। ১৯৪৭ সালে ২০ জুন বঙ্গীয় বিধানসভার যে ভোটাভুটি হয়েছিল তাতে তৎকালীন কমিউনিস্ট পার্টির দুই বিধায়ক জ্যোতি বসু ও রতনলাল ব্রাহ্মণ কিন্তু পশ্চিমবঙ্গ গঠনের পক্ষে শ্যামাপ্রসাদকেই সমর্থন করেছিলেন। তাই বাংলা ভাগ শুধু শ্যামাপ্রসাদ নন কমিউনিস্টরাও চেয়েছিল সেদিন।’

এদিনের সভায় উপস্থিত বিজেপি বিধায়ক দুলাল বর বলেন, ‘আমি এতবছর বিধানসভায় আছি এই দিনটির কথা জানতাম না। এই দিনটির পিছনে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার ইতিহাস। পশ্চিমবঙ্গ দিবস বিধানসভায় এতো দিন পালিত হয়নি কেন? এর পিছনে কি কোনও স্বার্থ আছে? ইতিহাসকে ভুলিয়ে দিয়ে শ্যামাপ্রসাদের অবদানকে নসাৎ করা যাবে না। আমি বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে করজোড়ে চিঠি লিখে অনুরোধ করেছিলাম দিনটি পালন করার। কিন্তু উনি মুখের ওপর না করে দিলেন। একুশে বিজেপি ক্ষমতায় আসলে আমরা সরকারিভাবে দিনটি পালন করব। বিধানসভায় একটি স্মারকও বসাবো।’

এদিকে পশ্চিমবঙ্গ দিবসে রাজ্যবাসীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টলিউডের নায়িকা রিমঝিম মিত্র বলেছেন, ‘অনেক কষ্ট করে আমরা পশ্চিমবঙ্গ পেয়েছি। কিন্তু আজও আমরা বঞ্চিত। আমরা আমাদের অধিকার রক্ষা করতে পারিনি। এদিনই পাকিস্তান ভেঙে তৈরি হয় বাঙালি হিন্দুর হোমল্যান্ড আমাদের পশ্চিমবঙ্গ। সেই সময় একের পর এক হিন্দু গণহত্যা এবং সোহরাওয়ার্দী সরকারের সন্ত্রাসের ফলে হিন্দুদের নিজের দেশেই বাঁচতে হচ্ছিল পরবাসী হয়ে। ভারত কেশরির একান্ত প্রচেষ্টায় আমরা হিন্দু বাঙালিরা নিজের ভূমি পেয়েছিলাম। কিন্তু বর্তমানে ফের পশ্চিমবঙ্গে বাদুরিয়া, কালিয়াচক, ধূলাগড়ে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। সেইসব অপ্রীতিকর ঘটনা কিসের ইঙ্গিত দিচ্ছে ?’

এদিন রিমঝিম প্রশ্ন তুলেছেন,‘ যে বাঙালির জন্য ড. শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় নিজের জীবন বিসর্জন দিয়ে দিলেন, সেই বাঙালির রক্ত কি আজও ঝরছে না? কালিয়াচক, বসিরহাট, দেগঙ্গা এগুল কিসের ইঙ্গিত দিচ্ছে বলুনতো! আমাদের পূর্বজদের দিয়ে যাওয়া অধিকার আমরা কি রক্ষা করতে পারছি?’

Jyoti Basu,  Bangla distribution,  Bang  BJP

Related Articles

Back to top button
Close