fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কালাইনে ব্যবসায়ী খুন, রাজপথে মৃতদেহ রেখে প্রতিবাদ, গ্রেফতার এক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক, কাটিগড়া: জলের পাইপলাইন বসানো নিয়ে ঝগড়ায় পড়শির আক্রমণে গুরুতর আহত কালাইনের ব্যবসায়ী শিবুল দে মৃত্যু হয়। তিনি ঘটনার চারদিন পর শিলচর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।মঙ্গলবার তাঁর মৃতদেহ কালাইন পৌঁছালে মৃতদেহ নিয়ে রাজপথ অবরোধ করে প্রতিবাদে নেমে পড়েন স্থানীয়রা। যদিও কিছুক্ষণের মধ্যেই পরিস্থিতি সামাল দিতে সক্ষম হয় পুলিশ।

চার জুন ঘটেছিল মারপিটের ঘটনা। ছয় নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে একটা জলের পাইপলাইন বসানো নিয়ে প্রথমে ঝগড়া হয়। একসময় তা মারপিটে গড়ায়।পড়শি সুব্রত দাস শাবল, দা নিয়ে ব্যবসায়ী শিবুল দের উপর আক্রমণ চালায়। এতে গুরুত্বর আহত হন ব্যবসায়ী। ঘটনার পর প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই আহত শিবুল দেকে কালাইন এফআরইউ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু তাঁর জখম গুরুতর থাকায় কালাইন থেকে তাঁকে পাঠিয়ে দেওয়া হয় শিলচর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। উন্নত চিকিৎসার জন্য পরে তাঁকে গুয়াহাটি নিয়ে যাওয়া হলেও চিকিৎসকদের পরামর্শে ফের শিলচরে নিয়ে আসা হয়।সোমবার সন্ধ্যায় শিলচর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়।

পোস্টমর্টেমের পর মঙ্গলবার দুপুরে মরদেহ পৌঁছায় কালাইন। শিবুল দের মরদেহ কালাইন পৌঁছালে উত্তেজিত স্থানীয়রা মরদেহ রাজপথে রেখে প্রতিবাদে নেমে পড়েন। যদিও রাজপথ বেশি সময় অবরোধ থাকেনি। পরিস্থিতি সামাল দিতে সক্ষম হয় পুলিশ। রাজপথ অবরোধ মুক্ত করে স্থানীয়রা মরদেহ নিয়ে সৎকারের জন্য শ্মশানমুখো হন।

প্রসঙ্গত এই ঘটনায় জড়িত বলে প্রধান অভিযুক্ত সুব্রত দাসকে ইতিমধ্যে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। কালাইন মণ্ডল বিজেপির সভাপতি নিত্যগোপাল দাস,কালাইন জিপি সভাপতি মৃদুলকান্তি চক্রবর্তীরা জানান, হতভাগা পরিবারের লোকজন যাতে ন্যায় বিচার পান তার জন্য চেষ্টা চালাবেন তাঁরা। মৃত শিবুল দের মূল বাড়ি হাইলাকান্দি জেলার কাটলিছড়ার মহাদেবপুর গ্রামে হলেও দীর্ঘ বছর থেকে কালাইনে বসবাস করে আসছেন। এদিন কালাইন বাজার শ্মশানে তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

Related Articles

Back to top button
Close