fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

কাশ্মীর পরিস্থিতির বিরোধী, সক্রিয় মানবাধিকার কর্মী, ভারতের জন্য কেমন হবেন কমলা? নজর রাখছে দিল্লি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ডেমোক্র্যাট নির্বাচিত উপ রাষ্ট্রপতি হিসেবে নমিনেশন পেয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত সেনেটর কমলা হ্যারিস। ইতিহাসে এই প্রথম মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ পদে ভারতীয় যোগসূত্র বাস্তবায়িত হলে আগামী দিনে ভারত-মার্কিন সমীকরণে প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি হতে পারে। এমনকি চাপ বাড়তে পারে মোদি সরকারের ওপরেও। আর এই সব কিছুর নেপথ্যে কাশ্মীরের ৩৭০ ধারার অবলুপ্তিকরন একটি অন্যতম বড় বিষয় হিসেবেই দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।

আগামী বছর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে যদি আসীন হন কমলা তাহলে তিনি কাশ্মীরের বিষয়টিকে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃতি দানের প্রচেষ্টা করবেন। যা আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের জন্য বিপদ সংকেত বলেই মনে করছে কূটনৈতিক মহল।

কমলা মানবাধিকারের একজন সক্রিয় কর্মী এবং সমর্থক। তিনি বিভিন্ন জুতা বহুবার মানবাধিকারের পক্ষে আওয়াজ তুলছেন। প্রথমবার ভারতীয় বংশোদ্ভূত কেউ যদি মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হন তিনি হবেন কমলা। এবং আমি নিশ্চিত যে কমলা ভারতীয়দের বিশেষ করে কাশ্মীরিদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়টিও আন্তর্জাতিকভাবে তুলে ধরতে সক্রিয় ভূমিকা নেবেন। সম্প্রতি দিল্লির একটি জাতীয় টেলিভিশন এমনই বক্তব্য রেখেছেন কমলার মামা ডক্টর গোপালন বালাচান্দ্রন।

তিনি আরো বলেন তিনি ভাইস প্রেসিডেন্ট হলেন কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা অবলুপ্তিরকরন শুধু নয় উপত্যকার স্বাভাবিক জীবনযাপন এবং ইন্টারনেট কানেক্টিভিটি নিয়েও প্রশ্ন তুলতে পারেন।

উল্লেখ্য ২০১৯ সালে ভারতের বিদেশ মন্ত্রী এস জয়শঙ্কর কর্তৃক ভারতীয় বংশোদ্ভূত আরেক মার্কিন কংগ্রেসওম্যান প্রমীলা জয়পাল এর সঙ্গে সাক্ষাৎ প্রত্যাখ্যানের ঘটনায় তিনি তীব্র নিন্দা করেছিলেন ভারতীয় বিদেশমন্ত্রীর। কোনও বিদেশি সরকারেরই অধিকার নেই মার্কিন কংগ্রেসকে জানানোর যে সেদেশে কার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন এবং করবেন না। এটি সম্পূর্ণ মার্কিন কূটনৈতিক ওপর নির্ভরশীল। তিনি এই ভাষায় টুইট করে ভৎসনা করেছিলেন ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের।

 

পরিস্থিতির ওপর দাঁড়িয়ে এবং আসন্ন মার্কিন নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে কমলা হ্যারিসের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে আসীন হওয়া কিংবা জো বাইডেনের পররাষ্ট্র নীতি এবং ভারত বিষয়ক নীতি কেমন হতে পারে সেই দিকে তাকিয়ে গোটা বিষয়টিকেই ইতিমধ্যেই আতশ কাচে ফেলে কাটাছেঁড়া শুরু করেছে নয়াদিল্লি। কমলা হ্যারিসের উত্থান ও নির্বাচন সবকিছুই খুব কাছ থেকে মেপে দেখছে সাউথ ব্লক।‌

Related Articles

Back to top button
Close