fbpx
আন্তর্জাতিকআমেরিকাহেডলাইন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম! ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা কমলা আমেরিকায় ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই প্রথম ভাইস প্রেসিডেন্টের দৌড়ে একজন ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা৷ মার্কিন নির্বাচনের আগে মাস্টারস্ট্রোক দিলেন ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বিডেন। নির্বাচনে নিজের সঙ্গী হিসেবে তিনি বেছে নিলেন অ-শ্বেতাঙ্গ এবং প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত মহিলা কমলা হ্যারিসকে। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে টেক্কা দেওয়ার জন্য এবার যৌথভাবে লড়াই করবেন বিডেন এবং কমলা। জো বাইডেন জিতলে আমেরিকায় প্রথম কোনও কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা ভাইস প্রেসিডেন্ট হবেন ক্যালিফোর্নিয়ার সেনেটর কমলা৷

জো বাইডেন ট্যুইট করে জানিয়েছেন, ‘ একজন সাহসী যোদ্ধা ও দেশের অন্যতম সেরা জনগণের সেবক কমলা হ্যারিসকে আমি রানিং মেট হিসেবে বেছে নিলাম৷ আমেরিকার জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করতে পারবেন। কারণ সারাজীবন ধরেই তিনি সবার জন্য লড়াই করেছেন। হ্যারিসকে সঙ্গে নিয়ে আমরা সবাই মিলে ট্রাম্পকে হারাতে চলেছি৷’

একটা সময় কমলা মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হওয়ার লড়াইয়েও ছিলেন। কিন্তু ডেমোক্র্যাটদের দলের অন্দরের লড়াইয়ে জো বিডেনের  কাছে হেরে যান তিনি। দলের অভ্যন্তরীণ নির্বাচনের সময় একাধিক বিতর্কে বিডেনকে তুলোধোনাও করেছেন কমলা। কিন্তু সেই বিডেনই এবার তাঁকে নিজের সঙ্গী হিসেবে বেছে নিলেন। আসলে আমেরিকার ভারতীয়দের মধ্যে ট্রাম্প অত্যন্ত জনপ্রিয়। আর আমেরিকায় বহু ভারতীয় বংশোদ্ভূতের বাস। ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের মধ্যে ট্রাম্পের সেই জনপ্রিয়তাকে টক্কর দেওয়ার জন্যই কমলাকে বেছে নিয়েছেন বিডেন। তাছাড়া আমেরিকায় সম্প্রতি শ্বেতাঙ্গ-কৃষ্ণাঙ্গের বিবাদ নিয়েও প্রচুর জলঘোলা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে একজন অ-শ্বেতাঙ্গকে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী করে কৃষ্ণাঙ্গদেরও মন পাওয়ার চেষ্টা করলেন ডেমোক্র্যাট নেতা। বিডেনের এই মাস্টারস্ট্রোক ট্রাম্পকে চাপে ফেলবে সন্দেহ নেই।

আজ অর্থাত্‍ বুধবার বাইডেন ও কমলা একসঙ্গে উইলমিংটনে ভাষণ দেবেন৷ ৫৫ বছর বয়সি ভারতীয় বংশোদ্ভূত কমলা হ্যারিস ডেমোক্র্যাটিক দলের অন্যতম জনপ্রিয় মুখ ৷ হ্যারিস এমন একটি সময়ে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদের জন্য লড়ছেন, যখন করোনা ভাইরাসের জেরে আমেরিকার অর্থনীতি বিপজ্জনক পরিস্থিতিতে ৷ দেড় লক্ষের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে ইতিমধ্যেই ৷ প্রচুর মানুষ কাজ হারিয়ে বেকার৷

আরও পড়ুন: বিতর্কিত প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তাল বেলারুশ

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ক্যালিফোর্নিয়ার সেনেটর হ্যারিসকে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী করে এক ঢিলে দুটি পাখি মারলেন বাইডেন৷ প্রথমত, কমলা হ্যারিস ভারতীয় বংশোদ্ভূত, ফলে মার্কিন মুলুকে বসবাসকারী ভারতীয় বংশোদ্ভূতদের ভোট ব্যাঙ্ক টানতে পারেন বাইডেন৷ দ্বিতীয়ত, প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মহিলাকে ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে প্রার্থী করে আমেরিকার কৃষ্ণাঙ্গ ভোটব্যাঙ্কও সুরক্ষিত করার চেষ্টা৷

উল্লেখ্য, অকল্যান্ডে জন্মগ্রহণ করেন কমলা হ্যারিস৷ জামাইকান ও ভারতীয় বাবা-মার সন্তান কমলা ডেমোক্র্যাট দলের এক তারকা প্রার্থী ছিলেন। হ্যারিস প্রথমবার ২০০৩ সালে নির্বাচনে জেতেন৷ স্যান ফ্রান্সিসকোর ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি নির্বাচিত হন৷ ২০১০ সালে ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল নির্বাচিত হন কমলা ৷২০১৭ সালে প্রথম অ-শ্বেতাঙ্গ মহিলা সেনেটর হিসেবে ক্যালিফর্নিয়া থেকে নির্বাচিত হন কমলা। তার আগে সানফ্রান্সিস্কোর ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি ও ক্যালিফর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল পদে ছিলেন।  প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অন্যতম প্রধান সমালোচকও তিনি। কমলাকে নিয়ে পাঁচ জন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী প্রেসিডেন্ট লড়াইয়ে নেমেছিলেন। তাঁদের মধ্যে ছিলেন বিডেন এবং কমলা। এবার তাঁরা যৌথভাবে লড়বেন রিপাবলিকানদের বিরুদ্ধে।

Related Articles

Back to top button
Close