fbpx
দেশবিনোদনহেডলাইন

‘অভিষেক ঝুলে পড়লে আর শ্বেতাকে মলেস্ট করা হলে?’ জয়াকে কড়া আক্রমণ কঙ্গনার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বলিউডের সঙ্গে মাদক চক্রের যোগ নিয়ে বিজেপির সাংসদ অভিনেতা রবি কিষেণের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার তোপ দাগেন জয়া বচ্চন। জয়া বলেছিলেন, ‘মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে অপমান করার ষড়যন্ত্র চলছে। এটা লজ্জার।’যে থালায় খান, সেখানেই ছিদ্র করেন।’ সমাজবাদী পার্টির সাংসদ জয়ার ওই মন্তব্যের পর এবার তাঁকে পালটা আক্রমণ করলেন কঙ্গনা রানাউত।

এ দিন কঙ্গনা ট্যুইটে জয়া বচ্চনকে জবাব দিয়ে বলেছেন, ‘আমার জায়গায় যদি আপনার কন্যা শ্বেতা থাকতেন, তাঁকেও যদি মারধর করা হত, কিশোরী অবস্থায় টেনে-হিঁচড়ে শ্লীলতাহানি করা হত, তাহলেও কি আপনি এই একই কথা বলতেন? কিংবা ধরুন অভিষেককে যদি ক্রমাগত আক্রমণ করা হত এবং একদিন তাঁর মৃতদেহ যদি ঝুলন্ত অবস্থায় ঘর থেকে উদ্ধার করা হত, তাহলেও এই কথা বলতে পারতেন কি না বলে জয়া বচ্চনকে প্রশ্ন করেন কঙ্গনা। পাশাপাশি জয়া বচ্চন যাতে তাঁদের উপরও একটু দয়া, মায়া দেখান, সেই আবেদনও করেন অভিনেত্রী।

বর্তমানে সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর তদন্তে বলিউডের ড্রাগ-যোগের বিষয়টি উঠে আসায় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের বিরুদ্ধে আঙুল উঠেছে। সে বিষয়ে এ দিন জয়া বচ্চন তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘বিনোদন জগতের মানুষদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভর্ত্‍‌সনার শিকার হচ্ছে। যে সব লোকেরা এই ইন্ডাস্ট্রিতে এসেই নাম কামিয়েছেন, তাঁরাই এখন একে নর্দমা বলছেন। আমি এর সঙ্গে একেবারেই সহমত নই। আশা করব, এই ধরনের লোকেদের এই ভাষা ব্যবহার বন্ধ করতে বলবে সরকার।’

দিন কয়েক আগেই বলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিকে ‘গটর’ অর্থাত্‍‌ নর্দমা বলে কটাক্ষ করেছিলেন কঙ্গনা রানাওয়াত। তিনি অভিযোগ করেছিলেন, ইন্ডাস্ট্রির ৯৯ শতাংশ মানুষই মাদকের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছেন। এ দিন একই ইস্যুতে কঙ্গনা ছাড়াও বিজেপি সাংসদ রবি কিষণের বিরুদ্ধেও তোপ দাগেন জয়া বচ্চন। তিনি আক্রমণাত্মক সুরে বলেন, ‘মাত্র কয়েকজনের জন্য গোটা ইন্ডাস্ট্রিকে আপনি কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে পারেন না। আমি লজ্জিত যে গতকাল আমাদের লোকসভার এক সদস্য, যিনি নিজেই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিরই লোক, এর বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। এটা লজ্জার।’

আরও পড়ুন: চুরি যাওয়া ৬ লক্ষ টাকা রাম মন্দিরের ট্রাস্টের হাতে তুলে দিল এক রাষ্ট্রয়ত্ব ব্যাঙ্ক

সোমবার বিজেপি সাংসদ রবি কিষণ বলেন, ‘দেশের যুব সম্প্রদায়কে শেষ করে দিতে ষড়যন্ত্র চলছে। আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলিও তাতে যোগ দিয়েছে। প্রতি বছর চিন ও পাকিস্তান থেকে দেশে মাদক মাদক পাচার করা হচ্ছে। পঞ্জাব ও নেপালের মধ্যে দিয়ে মাদক আসছে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতেও মাদকাশক্তি রয়েছে। অনেককেই ধরা হয়েছে। খুব ভালো কাজ করছে এনসিবি। অপরাধীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে বলব কেন্দ্রীয় সরকারকে। তাদের কঠোর শাস্তি দিয়ে প্রতিবেশী দেশগুলির ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে হবে।’

রবি কিষণের ওই মন্তব্যের পর মঙ্গলবার তার বিরোধিতা শুরু করেন জয়া বচ্চন। তিনি বলেন, কয়েকজন মানুষের জন্য গোটা ইন্ডাস্ট্রির বিরুদ্ধে আপনি আঙুল তুলতে পারেন না। যে থালায় খান, সেখানেই ছিদ্র করেন বলে রবি কিষেণের বিরুদ্ধে কড়া আক্রমণ করেন জয়া বচ্চন। তারপর থেকেই শুরু হয় জোর তরজা।

Related Articles

Back to top button
Close