fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কাটমানি ভাইরাসে আক্রান্ত তৃণমূল, স্যানিটাইজেশনের দায়িত্ব বিজেপিকেই নিতে হবে: কাশেম আলী

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস : কাটমানি একটি ছোঁয়াচে রোগ এবং এই রাজ্যে রোগটির আমদানি করেছে তৃণমূল। তাই রাজ্যবাসী খুব সাবধান, এদের সংস্পর্শে আসলেই চরম বিপদ, যতটা সম্ভব এদের থেকে দূরে থাকার চেষ্টা করুন।এই ভাবেই সাগরদীঘি সভামঞ্চ থেকে বার্তা দিলেন বিজেপি সংখ্যালঘু সেলের রাজ্য সহ সভাপতি কাশেম আলী।

শনিবার মুর্শিদাবাদ জেলার সাগরদীঘি বিধানসভা এলাকায়, কৃষি সুরক্ষা আইনের সমর্থনে বিজেপির সাগরদীঘি আঞ্চলিক নেতৃত্বের ব্যবস্থাপনায় আয়োজিত পদযাত্রা সহ আলোচনা সভা মঞ্চে হাজির ছিলেন জননেতা কাশেম আলী। মুর্শিদাবাদ জেলার সাগরদীঘি সহ পার্শ্ববর্তী এলাকা সমূহের কর্মী সমর্থক সহ কৃষক ক্ষেতমজুর দের স্বতঃস্ফুর্ত অংশগ্রহণে উৎসব আবহে মুখরিত হয়ে ওঠে সভামঞ্চ। সাগরদীঘি পি, ডব্লিউ,ডি মাঠ থেকে পুরো শহর পরিক্রমার পর আলোচনা সভায় বক্তা হিসাবে উপস্থিত থেকে কথাগুলি বলেন কাশেম আলী। কাশেমজী আরো বলেন, নয়া কৃষি সুরক্ষা আইন কার্যকর হওয়ার মধ্যদিয়ে কাটমানির কোন অপশন না থাকাতেই তৃনমূলের যত বিরোধিতা। নয়া কৃষি সুরক্ষা আইনে ফড়েরাজ পদটির অবলুপ্তি না ঘটলে হয়তো তৃণমূলীদের পথে নামতে দেখা যেত না,অভিমত কাশেমজীর। তৃণমূল এতদিন রাজ্যে ফোঁড়ে রাজের রোলটা প্লে করে এসেছে, এজন্য ই ওদের এতো কষ্ট এবং প্রতিবাদ।সভাস্থলে পৌঁছানোর আগে কাশেমজী এলাকার একটি কৃষি জমি পরিদর্শনে যান এবং সেখানে কর্মরত কৃষকদের সঙ্গে নয়া কৃষি সুরক্ষা আইনের বিস্তারিত ব্যাখ্যা সহ কৃষকদের সঙ্গে মত বিনিময় করেন।

Related Articles

Back to top button
Close