fbpx
দেশহেডলাইন

আগামী ২০২২ সালে উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে অংশ নিতে চলেছে আপ, ঘোষণা কেজরিওয়ালের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এবার ‘আপ’-এর নজর পরল উত্তর প্রদেশে। আগামী ২০২২ সালে উত্তর প্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনে অংশ নিতে চলেছে আম আদমি পার্টি। এমনটাই জানালেন দলের প্রধান তথা দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল । সেইসঙ্গে দুর্নীতিমুক্ত সরকার উপহার দেওয়ার কথাও বলেন তিনি।

অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলেন, “গত আট বছরে দিল্লিতে তিনবার সরকার গড়েছে আপ। পঞ্জাবেও প্রধান বিরোধী দল হয়ে উঠেছে আমাদের দল। আজ একটা গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করতে চাই আমি, ২০২২ সালে উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে লড়াই করতে চলেছে আপ।”প্রসঙ্গত, বিগত সপ্তাহেই দলের তরফে আগামী বছরের শুরুতেই গুজরাটের প্রসাশনিক নির্বাচন-এও অংশ নেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়।

গুজরাটে আপ-এর সংগঠন টুইট করে জানায়, আসন্ন  নির্বাচনে প্রত্যেকটি আসন থেকে লড়াই করতে চলেছে দল এবং যুব নেতা গোপাল ইটালিয়াকে রাজ্য কনভেনার হিসাবে নিয়োগ করা হয়েছে। এদিন যোগী সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ”উত্তর প্রদেশের মানুষদের চিকিৎসা ও পড়াশোনার মতো সাধারণ সুবিধার জন্যও দিল্লিতে আসতে হচ্ছে। দেশের বৃহত্তম রাজ্য কি সর্বাধিক উন্নত রাজ্য হতে পারে না? উত্তর প্রদেশের নোংরা রাজনীতি ও দুর্নীতিগ্রস্থ নেতাদের জন্যই রাজ্যের উন্নয়ন আটকে রয়েছে। রাজ্যবাসী সব দলকেই সুযোগ দিয়েছে, কিন্তু প্রতিটি সরকারই দুর্নীতির নতুন রেকর্ড গড়েছে।”

দিল্লি ও প্রতিবেশী রাজ্য উত্তর প্রদেশের মধ্যে উন্নয়নের তুলনা টেনে কেজরি বলেন, ‘যদি দিল্লির হাসপাতালগুলি উন্নত হতে পারে, রাজ্যবাসী বিনামূল্য বিদ্যুৎ পরিষেবা পেতে পারে, তবে উত্তর প্রদেশেও একই পরিষবা পাওয়া যায় না? যেখানে উত্তর প্রদেশের স্কুলগুলি শিক্ষার মানের নূন্যতম সীমাও পার করতে পারছে না, সেখানে দিল্লির স্কুলগুলো কি করে নতুন নতুন রেকর্ড গড়ছে? আমাদের রাজ্য নারী সুরক্ষার জন্য সব জায়গায় সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো হয়েছে, অথচ উত্তর প্রদেশে প্রতিদিনই মহিলাদের বিরুদ্ধে অপরাধের ঘটনা বেড়েই চলেছে।’

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close