fbpx
দেশহেডলাইন

আর্থিক মন্দা কাটাতে প্রশিক্ষণ দিয়ে আরও বেশি নার্স বিদেশে পাঠাবে কেরল

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনার জেরে বেহাল দশা দেশের অর্থনীতির। আর সেই কারণে এবার রাজ‍্যের অর্থনীতি চাঙ্গা করতে অন্য পন্থা অবলম্বন করতে চলেছে কেরল। আর্থিক মন্দা কাটাতে প্রশিক্ষণ দিয়ে আরও বেশি নার্স বিদেশে পাঠাবে কেরল। সূত্রের খবর, প্রশিক্ষণ দিয়ে আরও বেশি নার্স এবং চিকিৎসাকর্মী তৈরি করতে চায়। তার পর তাঁদের বিদেশে পাঠাতে চায়। তাহলেই এই নার্সরা বিদেশ থেকে আরও বেশি টাকা নিজের পরিবারকে পাঠাবে। এতে ঘুরপথে রাজ্যের আয় বাড়বে। মনে করছেন কেরলের অর্থমন্ত্রী টমাস আইজ্যাক।

টমাসের কথায়, দেশ এখন বুঝতে পেরেছে জনস্বাস্থ্য ক্ষেত্রে বিনিয়োগ না করলে তার ফল কতটা মারাত্মক হতে পারে। বিশেষত এই ধরনের মহামারীর আবহে। জনস্বাস্থ্যে সঠিক সময়ে বিনিয়োগ করা হয়নি বলে আজ মার খাচ্ছে দেশের অর্থনীতি। তিনি আরও বললেন, কেরলের নার্স এবং চিকিৎসাকর্মীদের চাহিদা গোটা দুনিয়ায় রয়েছে।

কেরলের অর্থমন্ত্রী টমাসের কথায়, আধুনিক প্রশিক্ষণ নিয়ে এই নার্সরা বিদেশ গেলে রাজ্যের অর্থনীতি শক্ত হবে। এই নার্স, চিকিৎসাকর্মীরা পরিবারকে টাকা পাঠায়। তা প্রথমত এবং প্রধানত খরচ হয় নির্মাণশিল্পে। বিদেশ থেকে টাকা পাঠানো কমে গেলে রাজ্যের নির্মাণ এবং রিয়েল এস্টেট মার খাবে। নার্সিং প্রশিক্ষণ কত খরচ করছে পিনারাই বিজয়ন সরকার, তা অবশ্য জানাতে চাননি টমাস। তিনি বললেন, ‘‌চাহিদা কমে গেলে ধার করে জিনিস কেনো। তাহলেই চাহিদা বাড়বে। মন্দা কাটানোর এটাই উপায়।’‌

উল্লেখ্য, কেরলে বহু বাসিন্দা নার্সিং পড়ে বিদেশে চাকরি করতে যান। সেখান থেকে পরিবারকে টাকা পাঠান। সেই টাকাই এই রাজ্যের অর্থনীতির প্রধান ইঞ্জিন। তার জেরেই দেশে সবথেকে বেশি শিক্ষিতের হার এই রাজ্যেই। পুরুষ–মহিলার অনুপাতও এই রাজ্যের সঠিক রয়েছে। ২০১৯ সালে কেরলের প্রবাসীরা রাজ্যে থাকা নিজেদের পরিবারকে আট হাজার কোটি ডলার পাঠিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close