fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দুর্গতদের পাশে খেজুরি সর্বোদয় সংঘ

ভীষ্মদেব দাশ, খেজুরি (পূর্ব মেদিনীপুর): কোভিড ১৯ ব্যাধির ফলে পূর্ব মেদিনীপুরের প্রান্তিক জনপদ খেজুরির গ্রামীন অর্থনীতির ভিত দুর্বল হয়ে পড়েছে। আর সেই দুর্বল জায়গায় শেষ পেরেকটি পুঁতেছে সাম্প্রতিক সাইক্লোন আমফান।

 

 

 

প্রবল ভয়ংকর তাণ্ডব নষ্ট করে দিয়েছে খেজুরির অর্থনীতি। বিশেষ করে খেজুরি-২ ব্লকের সমুদ্র সংলগ্ন বসবাসকারী মানুষদের স্মৃতিতে ফিরেছে ২০০ বছরের প্রাচীন সাইক্লোনের ভয়াল রূপ। কথিত ২০০বছর আগের ঝড় খেজুরির প্রাচীন বন্দর, টেলিগ্রাফ অফিস , পোস্ট অফিস সহ ইংরেজ ঔপনেবেশিক ইতিহাসকে নিশ্চিন্হ করে দেয়। এই খেজুরিতেই অর্থনৈতিক , প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও কোভিড ১৯ জনিত কারনে সামাজিক নানা সমস্যায় জর্জরিত প্রান্তিক ,কৃষিজীবি ও মূলত পিছিয়ে পড়া বর্গের মানুষ জন। মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন বহু মানুষ। প্রয়োজনীয় ত্রাণ সাহায্য ও সামগ্রী দিচ্ছেন।

 

 

 

খেজুরির অন্যতম অগ্রনী স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান সর্বোদয় সংঘ প্রবাসী ভারতীয় অমর ব্যানার্জী এবং দেউলি নিবাসী খেজুরি কলেজের অধ্যাপক সমীর সিং এর অর্থানুকূল্যে অনুরূপ ত্রান বিতরন করা হয়। খেজুরি-২ ব্লকের তিনটি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার ৩০০টি দুঃস্থ পরিবারকে। সংস্থার পক্ষে সম্পাদক সুব্রত মাইতি পরিবারগুলির হাতে খাদ্য সামগ্রী সহ স্বাস্থ্য পরিষেবার জিনিসপত্র তুলে দেন। সহযোগিতা করেন আশুতোষ সাহু,স্বপন দাস, অমরেশ মাইতি,শিক্ষক ও সমাজসেবী সমীর সিং, সুমন নারায়ন বাকরা , অরিন্দম মাইতি,জয়দেব মাইতি ,সুনীপ মাইতি, গৌতম পন্ডা,শক্তিপদ পাল, সেক আসমত সহ অন্যান্যরা। নিজকসবা ,খেজুরি ও জনকা গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ঝড় ও ব‍্যাধি বিদ্ধস্ত মানুষের দীশাহীন জীবনে ঔষধি প্রদান মানবিক পরশ এনেছে। সর্বোদয় সংঘের উদ্যোগে এই কাজ নবতম সংযোজন। এই উদ‍্যোগ কে সাধুবাদ জানিয়েছেন খেজুরি-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি অসীম মন্ডল, শ্যামল মিশ্র, সমুদ্ভব দাস প্রমুখরা।

Related Articles

Back to top button
Close