fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

করোনা আবহে ‘ডোর টু ডোর’ পরিষেবা পুরসভার

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: কলকাতা পুরসভা সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে ‘ডোর টু ডোর’ পরিষেবা চালু করতে চলেছে। শনিবার পুরসভায় একথা জানালেন পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ‘এবার থেকে সাধারণ মানুষকে পুর পরিষেবা পেতে আর পুরসভার দফতরে আসতে হবে না। ঘরে বসে নিজের পরতেই পাওয়া যাবে পুর পরিষেবা। আর ভিড় জমানো দরকার নেই পুরসভায় ক্যাম্পের মাধ্যমে পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া হবে আপনাদের দরজায়। এই ক্যাম্পে এরপর ধীরে ধীরে সমস্ত পরিষেবা অনলাইনে চালু করে দেয়া হবে। ২২ আগস্ট থেকে ‘কে এম সি অ্যাড ডোর স্টেপ’ শীর্ষক পরিষেবা শুরু হবে।

এতদিন পুর পরিষেবা নিতে সাধারণ মানুষকে পুরসভার দফতরে আসতে হত। কিন্তু করোনার আবহে এবার থেকে নিজের এলাকার মধ্যেই পুরসভার সব পরিষেবা পাবেন। বিশেষজ্ঞদের মতে, পুরসভার এই উদ্যোগ পুর কর্মীদের সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে সাহায্য করবে। পুরসভার এই চিন্তা ভাবনা কে তারা সাধুবাদ জানিয়েছে।

প্রত্যেক ওয়ার্ডের একটি নির্দিষ্ট এলাকায় ক্যাম্প করে পুর কর্মীরা সাধারণ মানুষ কে এই পরিষেবা দেবে। বিল্ডিং প্ল্যান মিউট্রেশন ট্যাক্স আদায় সহ রাস্তা ঘট জল আলো যে কোন পরিষেবা এই ক্যাম্প থেক মিলবে। এর ফলে শুধুমাত্র নাগরিকরাই সুবিধা ভোগ করবেন তা নয় পুরো কর আদায়ের ক্ষেত্রেও অনেকটাই গতি আসবে বলে খবর পুরসভা সূত্রে।

প্রাথমিক ভাবে তিনটি ওয়ার্ড কে বেছে নেওয়া হয়েছে। এর সাফল্য দেখে ধীরে ধীরে বাকি ওয়ার্ড গুলিতেঅ এই পরিষেবা চালু করা হবে। আগামী ৮ ই আগস্ট থেকে সাধারং মানুষ কে পরিষেবা দিতে এলাকায় এলাকায় পৌচে যাবে পুর কর্মীরা। ৬৮ নম্বর ওয়ার্ড থেকে শুরু হচ্ছে গেমসের এই পথ চলা। এরপর ২২ শে আগস্ট ৫৮ নম্বর ওয়ার্ডে এবং ২৯ আগস্ট ৮২ নম্বর ওয়ার্ডে এই ক্যাম্প করা হবে। এই ক্যাম্পে সাফল্যের ওপর নির্ভর করে তা সমস্ত এলাকাতেই ছড়িয়ে দেয়া হবে। যেখানে যেখানে ক্যাম্প হবে সেখানে সেখানে আগে থেকে মাইকে প্রচার করে সাধারণ মানুষকে অবগত করা হবে পুরসভার পক্ষ থেকে অথবা সেই এলাকার কো-অর্ডিনেটর সাধারণ মানুষকে এ বিষয়ে জানাবেন।

Related Articles

Back to top button
Close