fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোলাঘাট থেকে জঙ্গলমহলের এক প্রত্যন্ত গ্রামে পরিযায়ী শ্রমিককে পৌঁছে দিল বিজেপি কর্মীরা

বাবলু ব্যানার্জি, কোলাঘাট: করোনা ভাইরাস এর জন্য ভারতবর্ষজুড়ে চলছে লকডাউন। রাজ্য সরকার বাইরে কর্মরত পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর জন্য অঙ্গীকারবদ্ধ। বর্তমানে পরিযায়ী শ্রমিকরা যে যার বাড়ি ফিরছে বিভিন্ন রাজ্য থেকে। তেলেঙ্গানা থেকে শিবরাম মাঝি নামে এক পরিযায়ী শ্রমিক পুরুলিয়ার তার বাড়িতে যাওয়ার জন্য যাত্রা শুরু করে।

সেইসময় পথে ঘটল চরম বিপত্তি, বাস চালক ভুলবশত কোলাঘাটের হলদিয়া মোড়ের কাছে ছেড়ে রেখে কলকাতা দিকে রওনা দেয়। অপরিচিত স্থানে শ্রমিক শিবরাম মাঝি কোথায় যাবে কিছুই বুঝে উঠতে পারছিল না। অবশেষে পুরুলিয়া জেলার বাগমুন্ডি থানার ‘মাথা’ গ্রামে তার পরিজনকে বিষয়টি জানান।

কোলাঘাট থেকে পুরুলিয়া প্রায় ৩০০ কিলোমিটার দূরত্বের কথা মনে রেখে পরিবারের লোকজনরা উৎকণ্ঠার মধ্যে পড়ে। অবশেষে বাড়ির লোকজন পুরুলিয়ার বিজেপি সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোকে বিষয়টি জানান। সাংসদ পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিজেপি সভাপতি নবারুণ নায়েককে বিষয়টি দেখতে বলেন। নবারুণ বাবু কোলাঘাট ৩ মণ্ডল কমিটির নেতা বিবেক চক্রবর্তীকে জানান পুরো ঘটনা জানান। জেলা সভাপতির নির্দেশক্রমে বিবেক বাবু হলদিয়া মোড়ের কাছে গিয়ে ওই শ্রমিকের খোঁজখবর নিয়ে সাহায্য করার কথা বলেন।

প্রথম অবস্থায় ট্রাক বা অন্য কোনো যানবাহনের ব্যবস্থা করার কথা ভাবলেও শ্রমিকের মানসিক অবস্থার কথা ভেবে গাড়ি ভাড়া করে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন।

মদন মন্ডল,বাপ্পাদিত্য মন্ডল সহ বেশকিছু বিজেপি কর্মী সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন বিবেক বাবু সঙ্গে। রাত দশটা নাগাদ কোলাঘাট হলদিয়া মোড় থেকে ৬ নম্বর জাতীয় সড়কের উপর দিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয় গাড়ি। সকালের আলো ফুটতে না ফুটতেই বাগমুন্ডি থানার মাথা গ্রামে যখন গাড়ি গিয়ে থামল তখন তাদের পরিবারের সকলের চোখে জল তাদের ছেলেকে পেয়ে।

পরিবারের লোকজনরা প্রশংসায় পঞ্চমুখ করতে থাকে বিজেপি কর্মীদের তাদের ছেলেকে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার জন্য । প্রশংসা করতে ভুলেননি বিজেপি সাংসদ জ্যোতির্ময় সিং মাহাতোর ভূমিকাকেও।

পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিজেপি সভাপতি নবারুণ নায়েককে ধরা হলে তিনি বলেন সারা বছর ধরেই না কোন কাজ করে যাচ্ছে দল, সাংসদের নির্দেশ মতো এই ধরনের কাজ করতে পেরে বিজেপি কর্মীরা খুশি।

Related Articles

Back to top button
Close