fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কলকাতা পুরসভার প্রশাসক বসানো নিয়ে মামলা ফিরল হাইকোর্টে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা পুরসভার প্রশাসক বসানো নিয়ে মামলা ফিরল হাইকোর্টে। তবে দ্রুত মামলা নিষ্পত্তির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চের। বুধবার সুপ্রিম কোর্ট স্পষ্ট জানিয়ে দিল, এই মামলায় রায় দেবে হাইকোর্টই। তবে মামলাটির যাতে দ্রুত নিষ্পত্তি হয়, সেদিকে নজর রাখতে হবে।

প্রশাসক পদে পদে পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রীকে বসানোকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন শরদকুমার সিং। কলকাতা পুর নিগমের প্রশাসক বোর্ডকে ‘কেয়ারটেকার বোর্ড’ হিসেবে চিহ্নিত করে কলকাতা হাইকোর্ট। তাদের এক মাসের জন্য কাজ করার সুযোগ দেয় সিঙ্গল বেঞ্চের বিচারপতি সুব্রত তালুকদার। মে মাসের ৭ তারিখ কলকাতা হাইকোর্টের এই রায়ের পর হাইকোর্টের বিচারপতি আইপি মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন ব্যাংকের দ্বারস্থ হন মামলাকারী। ডিভিশন বেঞ্চের পর্যবেক্ষণ ছিল, অর্ডিন্যান্স করে এই সিদ্ধান্ত নিলে ভালো হত। এবং করোনা সংক্রান্ত আপৎকালীন পরিস্থিতিতে প্রশাসক বোর্ডকে কেয়ারটেকার হিসাবে স্বীকৃতি দিয়ে ২০ জুলাই পর্যন্ত কাজ চালিয়ে যাওয়ার অনুমতি দেয় হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।

এর পর হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হন শরদকুমার সিং। সুপ্রিম কোর্টেও তিনি দাবি করেন, কলকাতা পুরসভা এভাবে প্রশাসক নিয়োগ সম্পূর্ণ বেআইনি ও সংবিধানের পরিপন্থী। কলকাতা পুর আইনে (১৯৮০) প্রশাসক বসানোর কোন সংস্থান না থাকলেও করোনা ভাইরাস বা মহামারীকে ঢাল করে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। তাঁর বক্তব্য, কলকাতা পুর আইন অনুযায়ী একটি বোর্ডের কার্যকাল পাঁচ বছর। কিন্তু এক্ষেত্রে ‘রিম্যুভাল অফ ডিফিকাল্টিস’ অ্যাক্ট প্রয়োগ করে আদতে পুরো বোর্ডের কার্যকালের মেয়াদ বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close