fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রেকর্ড পলি তুলে কলকাতা জলমুক্ত, দাবি পুরসভার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ৬ বছরে রেকর্ড পলি তুলে কলকাতাকে কার্যত জলমুক্ত করল কলকাতা পুরসভা। বিগত কয়েকদিন ধরে শহর কলকাতায় অঝোরধারার বৃষ্টি হলেও তেমন চিত্রটাই চোখে পড়ল। কয়েকটি এলাকা বাদ দিয়ে কোথাও তেমন জল জমেনি। উত্তর কলকাতার নির্দিষ্ট এক-দুটি অঞ্চল, বাইপাসের খানিক অংশ, বেহালা এবং মোমিনপুর, ওয়াটগঞ্জ সহ কয়েকটি ‘পকেট’ বাদ দিলে সামগ্রিকভাবে শহরের জমাজলের চেনা ছবিটা একেবারেই বদলে গিয়েছে। গত কয়েক বছরে কার্যত রেকর্ড পরিমাণ পলি তোলার কাজকেই কারণ হিসাবে দেখাল পুরকর্তারা।
এ বিষয়ে নিকাশি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত তথা পুরপ্রশাসকমণ্ডলীর সদস্য তারক সিং বলেন, ‘বন্দর অঞ্চলে দু’টি পৃথক নিকাশির কাজ চলছে। ভূকৈলাশে এলাকায় একটি বড় ড্রেন বানানো হচ্ছে। দ্বিতীয়টি হচ্ছে এক ভূগর্ভস্থ নিকাশি নালা, এটা হচ্ছে ডেন্ট মিশনে। এখানে তৈরি হচ্ছে নতুন পাম্পিং স্টেশনও। সেই কাজ চলতি বছরের মধ্যেই শেষ হবে।’ ফলে আগামী বছর খিদিরপুর, মোমিনপুর, ওয়াটগঞ্জ সহ ওই এলাকার বিভিন্ন অঞ্চলের জমা জলের দুর্ভোগ অনেকটাই মিটবে বলেই আশা প্রকাশ করেছেন তারক সিং।
পুরসভার তথ্য অনুসারে, ২০১৪ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত এই ছ’বছরে শহরে পলি তোলা হয়েছে প্রায় ৭.৩০ মেট্রিক টন। সেখানে তার আগের ছ’বছরে এই পরিমাণ ছিল ১.৮২ লক্ষ মেট্রিক টনের আশেপাশে। অর্থাৎ প্রায় ৬ গুণ পলি শেষ ছ’বছরে তোলা হয়েছে। সেই কারণেই ক্রমশই শহরে জল জমার চিত্রটা বদলেছে। যা চলতি বছরের একেবার অন্যরকম এসে দাঁড়িয়েছে।
তবে পুরকর্তাদের মতে, আর্মহাস্ট্র স্ট্রিট, বড়বাজার, মুক্তারামবাবু স্ট্রিট, ঠনঠনিয়া চত্বরে চলতি বছর জমা জলের দেখা মিললেও বৃষ্টির বন্ধ হওয়ার ঘণ্টা দু’য়েকের মধ্যেই জল নেমেছে। অন্যদিকে, চিত্তরঞ্জন এভিনিউ, এসএন ব্যানার্জি রোড, কলেজ স্ট্রিট-সহ উত্তর কলকাতার বিস্তীর্ণ অঞ্চলে জল জমার সমস্যা এখনও সেরকম হয়নি চলতি মরশুমে। তবে, বেহালার কিছু অংশে, খিদিরপুর, ওয়াটগঞ্জ, মোমিনপুরের কিছু অঞ্চল বিক্ষিপ্তভাবে জলমগ্ন থেকেছে। বিশেষ করে তারাতলা রোড, জোকা মহাত্মা গান্ধী রোড-সহ শহরের বেশ কিছু রাস্তায় জল জমেছে। তারক সিং আরও বলেন, ‘বর্তমান বোর্ড এবং নিকাশি বিভাগের আধিকারিকদের অনবদ্য প্রয়াসে এই জমা জলের দুর্ভোগ মেটানো অনেকটাই সম্ভব হয়েছে। যদিও এই নিয়ে আত্মতুষ্টিতে নারাজ নিকাশি বিভাগের কর্তারা। অতিবৃষ্টিতে মোকাবিলার জন্য ঢিলেমির কোনও জায়গা নেই।’

Related Articles

Back to top button
Close