fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

গোটা উত্তর-পূর্ব ভারতের জৈব চাষের বিকাশে নেতৃত্ব দিতে পারে কলকাতা: নরেন্দ্র মোদি

বাংলার শিল্পায়নে বণিকসভাকেও এগিয়ে আসার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স-এর ৯৫তম বার্ষিক সাধারণ সভায় ভাষণ দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই সভা হচ্ছে কলকাতায়। বৃহস্পতিবার ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে বক্তব্য পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর এই সভা ঘিরে গতকাল থেকে অপেক্ষায় ছিলেন শিল্পপতিরা। করোনা ও আমফান আবহে প্রধানমন্ত্রী কি বলেন সেই আশা নিয়ে অপেক্ষার পারদ গুণছিলেন বণিক মহল।

এদিন কুশল বিনিময়ের মাধ্যমে বক্তব্য শুরু করার পরেই রাজ্যে শিল্পায়ন নিয়ে বক্তব্য পেশ করেন প্রধানমন্ত্রী। মোদি বলেন, বাংলার হারিয়ে যাওয়া গৌরব ফিরিয়ে আনতে পাট শিল্পের উন্নয়ন করতে হবে। গড়ে তুলতে হবে অনুসারী শিল্প। তবে শুধু শিল্পে নয়, গোটা উত্তর-পূর্ব ভারতের জৈব চাষের বিকাশে কলকাতা নেতৃত্ব দিতে পারে বলেও আশা ব্যক্ত করেন তিনি।
এদিন প্রধানমন্ত্রী বাংলার উন্নয়নের কথা বলতে গিয়ে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতার পংক্তিও উদ্ধৃত করেন। বাংলার শিল্পায়নে আইসিসি বা বণিকসভাকেও এগিয়ে আসতেও আহ্বান জানান তিনি।

আরও পড়ুন: ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্স-এর ৯৫তম বার্ষিক সাধারণ সভায় ভাষণ প্রধানমন্ত্রীর

এদিন বাংলার হারিয়ে যাওয়া গৌরব ফিরিয়ে আনার উপর জোর দেন নরেন্দ্র মোদি। তাঁর কথায়, “উৎপাদন শিল্পে বাংলার গৌরব ফেরাতে হবে। উৎপাদন ক্ষেত্রে দেশের মধ্যে শ্রেষ্ঠ ছিল ভারত। সেই গৌরব ফিরিয়ে আনতে হবে।” কৃষকদের উন্নয়ন করতেই শিল্পে জোর দিতে হবে বলে মত প্রধানমন্ত্রীর। তিনি বলেন, “যেখানে যে ফসল বেশি পরিমাণে উৎপন্ন হয়, সেখানে সেই ফসলকে কেন্দ্র করে শিল্প গড়ে তুলতে হবে।”

প্রধানমন্ত্রী এদিন বলেন, বাংলার পাট ও বাঁশ শিল্পের উপর জোর দেওয়ার কথায় তিনি বলেন, তাঁর কথায়, “বাংলায় প্রচুর পাট ও বাঁশ উৎপন্ন হয়। তাই এগুলিকে নিয়ে ক্লাস্টার গড়ে তুলতে হবে।” পাটশিল্পকে কেন্দ্র করে অনুসারী শিল্প গড়ে তোলারও পরামর্শ দেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রীর আরও বলেন, পরিবেশ রক্ষায় পাটের অবদান অবিস্মরণীয়। সিঙ্গল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার কমায় পাটের চাহিদা বাড়ছে। সেই চাহিদা কাজে লাগিয়ে বাংলার বণিক মহলকে সারা দেশে পাটের বিপণন বাড়াতে পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, “পশ্চিমবঙ্গে জুট কিষাণ উদ্যোগের জন্য ক্লাস্টার তৈরি হবে। একবার ভেবে দেখুন, বাংলায় তৈরি পাটের ব্যাগ সারা দেশের মানুষের হাতে থাকতে রাজ্যের কী বিরাট উপকার হবে।”

একইসঙ্গে, কলকাতা আবার গোটা দেশকে নেতৃত্ব দেবে বলেও মনে করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তাঁর কথায়, “শুধুমাত্র সিকিম নয়, গোটা উত্তর-পূর্ব ভারত জৈব চাষের হাব তৈরি হতে পারে। সেই কাজে কলকাতা নেতৃত্ব দিতে পারে।”

Related Articles

Back to top button
Close