fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কৃষি বিল ও উত্তরপ্রদেশের ঘটনার প্রতিবাদে দিনহাটায় অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি তৃণমূলের এসসি এসটি ওবিসি সেলের

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: নতুন কৃষি বিল ও উত্তরপ্রদেশের ঘটনার প্রতিবাদে দিনহাটায় অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি করল তৃণমূলের এসসি এসটি ওবিসি সেল। মঙ্গলবার সংগঠনের দিনহাটা এক ব্লক কমিটির পক্ষ থেকে ব্লকের পেটলা বাজারে দিনহাটা গোসানিমারি রাজ্য সড়কের ধারে প্যান্ডেল খাটিয়ে এই কর্মসুচি সংঘটিত হয়। এদিন এই অবস্থায় বিক্ষোভ চলাকালীন সেখানে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের কোচবিহার জেলা সভাপতি পার্থ প্রতিম রায়, দলের দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি প্রসন্ন দেব শর্মা,এসসি এসটি ওবিসি সেলের কোচবিহার জেলা সভাপতি পরেশ চন্দ্র বর্মন, রাজ্য কমিটির অন্যতম নেতা নুরুল আমিন চৌধুরী, মোশারফ হোসেন, আবুয়াল আজাদ, উইলসন বেশরা, দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি পুলক চন্দ্র বর্মন প্রমুখ।
দিনহাটা সিতাই বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত পেটলায় তৃণমূল কংগ্রেসের শাখা সংগঠন এসসি এসটি ওবিসি সেলের পক্ষ থেকে এদিন বেলা বারোটা থেকে এই কর্মসুচি শুরু হয়। চলে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত। এদিনের এই কর্মসুচি মূলত হাথরাসের ধর্ষণকাণ্ড ছাড়াও কেন্দ্রের নতুন কৃষি বিল নিয়ে। বিধানসভা ভোটের আগে সিতাই কেন্দ্রে দলীয় প্রার্থীর জয়ের লক্ষ্য নিয়ে এই বিক্ষোভ কর্মসুচি বলেও মনে করছে রাজনৈতিক মহল। এদিনের এই অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসুচিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে দলের জেলা সভাপতি পার্থ প্রতিম রায় বলেন, “উত্তরপ্রদেশের হাথরসে দলিত পরিবারের এক তরুণীকে যেভাবে গণধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে তা কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। ঘটনার প্রতিবাদে বিজেপির নেতৃত্বাধীন উত্তরপ্রদেশের সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের পাশাপাশি গোটা দেশজুড়ে এই ঘটনার প্রতিবাদে আন্দোলন শুরু হয়েছে। ঘটনার পর সাংবাদিকরা সেখানে যাওয়ার চেষ্টা করলে তাদের আটকে দেয় যোগী সরকারের পুলিশ। এমনকি তৃণমূলের প্রতিনিধি দল ওই পরিবারের সাথে দেখা করতে গেলে যোগী সরকারের পুলিশ তাদের হেনস্তা করে।” তৃণমূলের জেলা সভাপতি আরও বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজ্য সরকার অন্যান্য সম্প্রদায়ের পাশাপাশি তপশিলি সম্প্রদায় এর সামগ্রিক উন্নয়নে বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে তাদের উন্নয়নের চেষ্টা করে চলছে। আর উত্তরপ্রদেশে দলিতদের কোন উন্নয়ন হচ্ছে না। আগামী নির্বাচনে এ রাজ্যের মানুষ বিজেপিকে উপযুক্ত জবাব দেবে। উত্তরপ্রদেশের ঘটনার পাশাপাশি কেন্দ্রের নতুন কৃষি বিল নিয়েও বিজেপি সরকারকে চাঁচাছোলা ভাষায় আক্রমণ করেন তৃণমূলের কোচবিহার জেলা সভাপতি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে কোচবিহার জেলার বিভিন্ন প্রান্তে সেই আন্দোলন শুরু হয়েছে। এদিনের এই অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসুচিতে অন্যান্য নেতৃত্ব বক্তব্য রাখতে গিয়ে ঘটনার প্রতিবাদ এর পাশাপাশি একইভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন। কেন্দ্রের নতুন কৃষি বিল কৃষকের অধিকার হরণ করবে। এই কৃষি বিল কোনভাবেই লাগু হতে দেবেন না বলেও হুঁশিয়ারি দেন তৃণমূল নেতৃত্ব।
তৃণমূলের এসসি এসটি ওবিসি সেলের দিনহাটা এক ব্লক সভাপতি পুলক চন্দ্র বর্মন বলেন, দলের জেলা ও রাজ্য নেতৃত্বের নির্দেশে একদিকে হাথরসে দলিত তরুণীকে ধর্ষণ করে খুন অন্যদিকে নতুন কৃষি বিল নিয়ে এদিন বিক্ষোভ অবস্থান কর্মসুচি সংগঠিত হয়।

Related Articles

Back to top button
Close