fbpx
কলকাতাহেডলাইন

পুজোর মুখে কুমোরটুলির নয়া আকর্ষণ ট্রামের আদলে চায়ের দোকান

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: চায়ের সঙ্গে কলকাতার ট্রামের কোন সম্পর্ক আছে কি? প্রশ্নটা উঁকি দেওয়ার কারণ হল একাধিক বিজ্ঞাপনী ছবিতে দেখা গিয়েছে ভোরের কোলকাতার শটে ধোঁয়া ওঠা চায়ের শটের পরই গড়ের মাঠের বুক চিরে ট্রামের দৌড়। মাথা চুলকে আকাশ পাতাল ভাবার আর দরকার নেই। কুমোরটুলিতে মানিকদার চায়ের দোকানে গেলেই সব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে।  কবি বলেছেন ,’ মেলাবেন তিনি মেলাবেন।’ ট্রাম আর চায়ের মধ্যে সত্যি কোন সম্পর্ক আছে কিনা সেই উত্তর মিলিয়ে দিয়েছেন মানিকদা। উত্তরটা হলো ট্রাম আর চায়ের মধ্যে গভীর সম্পর্ক আছে। আরে মানিকদার চায়ের দোকানটাই এখন আস্ত ট্রামগাড়ি, তফাৎ শুধু চলে না, এই যা। পুজোর মুখে কুমোরটুলিতে শুধু পুজোর উদ্যোক্তারাই আসেন না, সাধারণ মানুষও ভিড় জমান।

আরও পড়ুন: ‘হাতির হানায় মৃতের পরিবারের সদস্য চাকরি পাবেন’ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

মানিকদার কথায়, ‘কলকাতার ট্রামের একটা আলাদা ঐতিহ্য রয়েছে। সেই ঐতিহ্যের কথা মনে রেখেই ট্রামের আদলে বদলে ফেললাম চায়ের দোকান।’  কুমোরটুলি অঞ্চলে যাঁরা আসেন তাঁদের কাছে পরিচিত মানিকদার চায়ের দোকান। এখানে ১০ টাকা থেকে ২৫ টাকার নানা স্বাদের চায়ে চুমুক দিতে দিতে পুরনো কলকাতার ছোঁয়া মিলবে ট্রামের বহিরঙ্গে।

Related Articles

Back to top button
Close