fbpx
দেশহেডলাইন

একেই বলে ভাগ্য…খাদান খুঁড়তে গিয়ে ৩৫ লক্ষের হিরে পেলেন এক শ্রমিক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: একেই বলে ভাগ্য…একটা বা দুটো নয়, তিন তিনটে হিরে পেলেন এক শ্রমিক। জানা গিয়েছে, খাদান খুঁড়তে গিয়ে তিন তিনটি হিরে পেলেন মধ্যপ্রদেশের এক শ্রমিক। আর এর ফলে একজন সাধারণ শ্রমিক থেকে রাতারাতি তিনি লাখপতি হয়ে গেলেন।

এই তিনটি হিরের আনুমানিক বাজারমূল্য ৩০ থেকে ৩৫ লক্ষ টাকা। বুন্দেলখণ্ড এলাকার পান্না জেলার এই খাদানে অতীতেও মিলেছে হিরের সন্ধান। সুবল নামে ওই শ্রমিক খাদানে প্রতিদিনের মতোই কাজ করছিলেন। হঠা‌ৎ একই জায়গায় পেয়ে যান তিনটি হিরে। পান্নার এই খনিটি হিরের জন্যই খ্যাত। কিছুদিন আগেই আরও এক শ্রমিক এই পান্নাতেই একটি হিরের খোঁজ পান। জানা গিয়েছে, সেটির ওজন ছিল ১০.৬৯ ক্যারাট। আর এবার সুবল নামে ওই শ্রমিক যে তিনটি হিরে পেয়েছেন তার মোট ওজন ৭.৫ ক্যারাট। সূত্রের খবর, হিরে মেলার পরে সুবল স্থানীয় ডায়মন্ড অফিসারকে জমা দিয়েছেন। ওই এলাকার ডায়মন্ড অফিসার আর কে পাণ্ডে হিরে তিনটির ওজন জানিয়ে বলেন, এগুলি নিলাম করা হবে। তাতে যে টাকা মিলবে তার ১২ শতাংশ কর বাবদ কেটে নেওয়া হবে। বাকি টাকা পাবেন ওই শ্রমিক। তিনিই জানিয়েছেন, আনুমানিক ৩০ থেকে ৩৫ লাখ টাকা পাওয়া যেতে পারে ওই তিনটি হিরে বিক্রি করে।

আর কে পান্ডে আরও জানিয়েছেন, এমন ঘটনা এই প্রথম নয়। কিছুদিন আগে মধ্যপ্রদেশের বুন্দেলখন্ড অঞ্চলের একটি হিরের খনিতে কাজ করতে গিয়ে ১০.৬৯ ক্যারেটের হিরে খুঁজে পেয়েছিলেন আরও এক শ্রমিক। পান্নার হিরে কার্যালয়ের লোকাল ডায়মন্ড অফিসার আর কে পাণ্ডে জানিয়েছেন যে রানিপুরের একটি খনির লিজ নিয়েছেন আনন্দিলাল খুশাওয়া নামে ৩৫ বছরের এক ব্যক্তি। তিনিই হিরে কার্যালয়ে ১০.৬৯ ক্যারাটের ওই হীরক খণ্ড জমা করেছেন।

 

Related Articles

Back to top button
Close