fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

সহকর্মীদের সুরক্ষায় জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডকে কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা লালবাজারের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোনও এলাকায় এক বা একাধিক করোনা সংক্রমণ হলেই সেই জায়গাকে কনটেনমেন্ট জোনের আওতায় নিয়ে আসার কথা ঘোষণা করেছে প্রশাসন। সোমবারই শহরের কনটেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বাড়িয়ে ৩১৮ টি ঘোষণা করেছে কলকাতা পুলিশ। আর তার হিসেব খতিয়ে দেখতে গিয়ে দেখা গিয়েছে সেই তালিকায় রয়েছেন জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের ঠিকানাও। কারণ গত কয়েক দিনে এখান থেকেই এক সার্জেন্ট এবং দুই কনস্টেবলের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট হয়েছিল।

সূত্রের খবর, সোমবার শহরে কন্টেনমেন্ট জোনের সংখ্যা বেড়ে ৩১৮ হয়ে গিয়েছে। উত্তর কলকাতার একাধিক রাস্তার নাম রয়েছে ওই নতুন তালিকায়। আর তাতেই দেখা যাচ্ছে, ওই তালিকায় ১৯ ওয়ার্ডের ২ নম্বর বরোর রবীন্দ্র সরণি, বারোয়ারিতলা লেন, শোভাবাজার স্ট্রিট, বেনিয়াটোলা স্ট্রিট এর সঙ্গে জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডের ঠিকানাও রয়েছে। সহকর্মীদের সুরক্ষায় যে লালবাজার তৎপর, তা এই ঘটনায় প্রমাণ হল বলে দাবি পুলিশকর্মীদের একাংশের।

আরও পড়ুন: রেলের খরচ বহন করতে মুখ্যসচিবের কাছে পরিযায়ী শ্রমিকদের তালিকা চেয়ে পাঠাল প্রদেশ কংগ্রেস

জানা গিয়েছে, জোড়াবাগান থানা ও ট্রাফিক গার্ডে ৩ জন করোনা পজিটিভ হওয়ায় ইতিমধ্যেই ১০ জনকে পাঠানো হয়েছে কোয়রান্টাইনে। কারা কারা ওই পুলিশকর্মীদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁর একটি তালিকাও তৈরি করা হচ্ছে। সার্জেন্ট আক্রান্ত হওয়ার পর ওই ট্রাফিক গার্ডও জীবণুমুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। পুলিশ কমিশনারের নির্দেশে বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর তৎপরতায় শহরের প্রত্যেক থানা এবং ট্রাফিক গার্ড নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করার কাজ চলছে। পুলিশকর্মীদের ডিউটি করার সময় স্যানিটাইজার, মাস্ক এবং গ্লাভস পরার ওপরেও জোর দেওয়া হয়েছে। বাহিনীর মনেবল অটুট রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন পুলিশ কমিশনার

Related Articles

Back to top button
Close