fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আসানসোলে সালানপুর এলাকায় ধস, ভেঙে পড়ল হোটেল

শুভেন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, আসানসোল: পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোলে ইসিএলের সালানপুর এরিয়ার ডাবর কোলিয়ারি সংলগ্ন সামডির লোহাট মোড়ে আবার ধসের ঘটনা ঘটলো।

এদিনের হঠাৎ করে হওয়া এই ধসে হুড়মুড়িয়ে ভেঙ্গে পড়ে একটি হোটেল। তবে এই ঘটনায় কোন হতাহত হয়নি। এই ঘটনায় এলাকায় নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার পরে এলাকার বাসিন্দারা একজোট হয়ে কোলিয়ারির ম্যানেজার ও সেফটি অফিসারকে ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান।
স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ইসিএল কর্তৃপক্ষ অবৈধভাবে কয়লা খনিতে ব্লাস্টিং বা বিস্ফোরণ ঘটাচ্ছে। যার ফলে এই এলাকার ধস নামছে। রাস্তাঘাটে ফাটল ধরছে। সাধারণ মানুষদের বাড়ি ও দোকান সেই ধসে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে ।

সামডি গ্রাম পঞ্চায়েতে ইসিএলের
সালানপুর এরিয়ার ডাবর কোলিয়ারির খোলা মুখ কয়লা খনি রয়েছে। সেখান থেকে ১০০ মিটার দূরত্বের মধ্যে রয়েছে দোকান ও বাড়ি। সবকিছু জানার পরেও কোনো নিয়ম ও আইন না মেনে ইসিএল কতৃপক্ষ কয়লা তোলার জন্য ব্লাস্টিং করে চলেছে। আর এই নিয়ে কর্তৃপক্ষকে কিছু বলতে গেলে তারা এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করছেন বলেও অভিযোগ।

এই প্রসঙ্গে সামডি পঞ্চায়েত প্রধান জনার্দন মণ্ডল এদিন বলেন, সামডি এলাকার প্রতিটি দোকানদার ও বাড়ির মালিকদের তাদের জায়গার মালিকানা রয়েছে। তাদের তরফে বহুবার ইসিএল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করা হয়েছে। ইসিএলকে তাদের জমির ন্যায্য দাম দিয়ে কিনে নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। কিন্তু ইসিএল কর্তৃপক্ষ বৈঠকে রাজি হলেও, তারা এইসব জমি এখনো কিনে নেয়নি। কিন্তু দিনের পর দিন কোলিয়ারিতে ব্লাস্টিং করানো হচ্ছে। যে কারণে ধসের ঘটনা ঘটছে। যার ফলে এলাকার বাড়ি ঘর ও দোকান ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।

ইসিএলের এরিয়া ম্যানেজারের তরফে বলা হয়েছে, এলাকার জমির কেনার কথা হয়েছে। তার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। শুধুমাত্র করোনার কারণে একটু দেরি হচ্ছে। খুব দ্রুত এইসব জমি ইসিএল কিনে নেবে।

Related Articles

Back to top button
Close