fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ফের সংক্রমণের নতুন রেকর্ড, হাজার ছুঁল মৃত্যু! রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৫৮৯, মৃত্যু ২০, সুস্থ ৭৪৯

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: দু’দিন ধরে রাজ্যে সংক্রমণের হার কিছুটা কম থাকার পরেও ফের ৪ দিন পর ভাঙল রেকর্ড। এ দিনের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, ফের রাজ্যে ২৪ ঘন্টায় নতুন সংক্রমণের হদিশ মিলেছে ১৫৮৯ জনের।

এদিনও রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ২০ জনের, যার মধ্যে ৯ জন কলকাতারই। আর এদিন এই ২০ জনের মৃত্যুতে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে মোট ১০০০ জনের মৃত্যু হল। তবে এদিন সুস্থতার সংখ্যা কিছুটা বেড়েছে। ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৭৪৯ জন।

২৪ ঘন্টায় ১৫৮৯ জন করোনা পজিটিভে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৩৪৪২৭ জনে। আরও ২০ জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে সরকারি হিসেবে মোট করোনায় মৃত্যু ১০০০ জনের। এদিকে ২৪ ঘন্টায় আরও ৭৪৯ জন সুস্থের হিসেব ধরলে মোট সুস্থ হলেন ২০৬৮০ জন। এর মধ্যে কলকাতাতেই এদিন ৪২৫ জন সংক্রমণে মোট সংক্রমণ ১০৯৭৫ জনের। মৃত ১০০০ জনের মধ্যে ৫২৫ জন কলকাতারই। এদিনও ৩৪৭ জন সংক্রমণে উত্তর ২৪ পরগনায় মোট সংক্রমণ ৬৬৩২ জনের। এই জেলায় এ দিন ৬ জনের মৃত্যু হওয়ায় মোট মৃত্যু ১৮৬ জনের।

এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে কলকাতাতে এদিনও ২২৫ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ১৪১ জন, হাওড়ায় ৭৭ জন এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৭২ জন সুস্থ হয়েছেন। কিন্তু বিপুল সংক্রমণের জেরে সুস্থতার হার অনেকটা কমে দাঁড়িয়েছে ৬০.০৬ শতাংশে। এই মুহূর্তে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ১২৭৪৭ জন। তার মধ্যে এদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৮২০ জন।

বুলেটিনে আরও জানানো হয়েছে, এদিন পর্যন্ত রাজ্যের ৫২ টি ল্যাবে মোট করোনা টেস্টের সংখ্যা ৬৪৯৯২৮ জনের। তার মধ্যে ২৪ ঘন্টায় রাজ্যে করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১১৩৮৮ জনের। রাজ্যের ৮০ টি করোনা হাসপাতাল, ২৬ টি সরকারি এবং ৫৪ টি বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১০৯৩৯ টি বেড আছে, আইসিইউ পরিষেবা রয়েছে ৯৪৮ জনের। ভেন্টিলেটর রয়েছে ৩৯৫ টি। তার ৩১.৯৯ শতাংশ রোগী ভর্তি আছেন।

সরকারি ৫৮২ টি কোয়ারেন্টাইনে এখন রয়েছেন ৪০৩৩ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ১০১৯৯৯ জনকে। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ২৪৩০৩ জন। ছেড়ে দেওয়া হয়েছে ৩৩৮২৯১ জনকে। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের তথ্যে জানানো হয়েছে, ১৫৩ টি কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ১১৫৮ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। করোনা পরীক্ষা করে সুস্থ দেখে ২৭৫০৪৯ জন শ্রমিককে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে সেফ হোম ও তার বেড সংখ্যা এবং সেখানে রোগীদের সংখ্যা উল্লেখ করে বলা হয়েছে, রাজ্যের ১০৬ টি সেফ হোমে ৬৯০৮ টি বেড রয়েছে এবং তাতে ৩৪১ জন রোগী রয়েছেন।

এছাড়া এদিনের বুলেটিনে জেলাওয়াড়ি তথ্যে জানানো হয়েছে, কলকাতায় ৯ জন, উত্তর ২৪ পরগনায় ৬ জন, হাওড়ায় ৩ জন, পশ্চিম বর্ধমান এবং হুগলিতে ১ জন করে করোনা রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এদিন অন্যান্য জেলার সঙ্গে দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ১৭৪ জন, হাওড়ায় ১৫১ জন, মালদা ১২১ জন, হুগলি ৭৪ জন, দার্জিলিং ৬৪ জন, পূর্ব মেদিনীপুর ৬০ জন, দক্ষিণ দিনাজপুরে ৪৪ জনের সংক্রমণ উল্লেখযোগ্য হারে সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিন উত্তরবঙ্গের কালিম্পং এবং দক্ষিণবঙ্গের ঝাড়গ্রাম ছাড়া সংক্রমণ বেড়েছে রাজ্যের বাকি সমস্ত জেলাতেই।

মোট আক্রান্ত ৩৪৪২৭ জন
মোট মৃত ১০০০ জন
মোট সুস্থ ২০৬৮০ জন

Related Articles

Back to top button
Close