fbpx
আন্তর্জাতিকগুরুত্বপূর্ণবাংলাদেশহেডলাইন

বাংলাদেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যা কমেছে

যুগশঙ্খ প্রতিবেদন, ঢাকা: মহামারি করোনাভাইরাসে বাংলাদেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২ হাজার ৯৪৯ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে প্রতিবেশি দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৭৮ হাজার ৪৪৩ জনে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ হাজার ৭৫ জন।

শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে এ তথ্য জানান সংস্থাটির অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৪ হাজার ৩৭৭টি, আগের নমুনাসহ পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৪৮৮টি। এ নিয়ে মোট পরীক্ষা হলো ৯ লাখ ১৮ হাজার ২৭২টি নমুনা। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৯৪৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ২১ দশমিক ৮৬ শতাংশ, এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৯ দশমিক ৪৩ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ২৭ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৪৮ দশমিক ৪২ শতাংশ।

মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ ২৯ জন এবং নারী আট জন। মোট মারা যাওয়াদের মধ্যে পুরুষ এক হাজার ৭৯৯ জন এবং নারী ৪৭৬ জন; এদের মধ্যে পুরুষ ৭৯ দশমিক শূন্য আট শতাংশ এবং নারী ২০ দশমিক ৯২ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৩ জন হাসপাতালে এবং ১৪ জন বাড়িতে মারা গেছেন।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে যুক্ত হয়েছেন ৮৯৩ জন, আর ৭৬৮ জন আইসোলশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন। ৩৪ হাজার ৯১৫ জন এখন পর্যন্ত আইসোলেশনে গিয়েছেন এবং ১৭ হাজার ৭২৩ জন ছাড়া পেয়েছেন। বর্তমানে আেইসোলেশনে রয়েছেন ১৭ হাজার ১৯২ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন দুই হাজার ৬০০ জন, আর তিন লাখ ৮৯ হাজার ১৯১ জন এখন পর্যন্ত কোয়ারেন্টিনে যুক্ত হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিন থেকে মুক্ত হয়েছেন দুই হাজার ১৬৯ জন, আর তিন লাখ ২৫ হাজার ৬৪৪ জন মুক্ত হয়েছেন। বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন ৬৩ হাজার ৫৩৭ জন।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা ভাইরাসের রোগী শনাক্ত হলেও প্রথম মৃত্যুর খবর আসে ১৮ মার্চ। দিন দিন করোনা রোগী শনাক্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ায় নড়েচড়ে বসে হাসিনা সরকার। ভাইরাসটি যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য লকডাউনসহ নানা পদক্ষেপ নেয়। যার ফলে বর্তমান করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যা কমতে শুরু করেছে।

Related Articles

Back to top button
Close