fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ক্যানিংয়ে আমফান দুনীর্তির বিরুদ্ধে বামেদের বিক্ষোভ

বাবলু প্রামানিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: রাজ‍্যের শাষক দলের একাধিক নেতা কর্মীর বিরুদ্ধে আমফান দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে তড়িঘড়ি ব‍্যবস্থাও নিয়েছে তৃণমূল। সম্প্রতি একাধিক নেতাকে দল থেকে বহিষ্কার করেছে তৃণমূল। এবার ফের একই অভিযোগ উঠল কানিংয়ের তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে। যার জেরে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১ টায় দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিং-১ বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায় স্থানীয়রা। ঘূর্ণিঝড় আমফান নিয়ে শাসক দলের নেতা, পঞ্চায়েতের প্রধান উপ-প্রধান পঞ্চায়েত সদস্যের দুনীর্তির অভিযোগ তুলে কয়েক হাজার সিপিএম, সিআইটিইউ, ডিওয়াইএফআই সহ বামফ্রন্টের বিভিন্ন সংগঠনের কর্মী সমর্থকরা বিক্ষোভ দেখায়।

ঘূর্ণিঝড় আমফানের দাপটে প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা ক্ষতি পূরণ পায়নি। ক্যানিং-১ ব্লকের মাতলা-১ ও ২, নিকাড়ীঘাটা, তালদি পঞ্চায়েত গুলিতে আমফানে প্রধান, উপ- প্রধান ও পঞ্চায়েত সদস্য সহ শাসক দলের নেতাদের বিরুদ্ধে স্বজন পোষন ও দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বামপন্থী সংগঠন গুলি। এমনকি কয়েক ঘন্টা ধরে ক্যানিং-১ বিডিও অফিস ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখায়। দুপুর ২ টায় বামফ্রন্টের বেশ কিছু সদস্য বিডিও নিলাদ্রি শেখর দের কাছে আমফানে শাসক দলের নেতা, প্রধান উপ-প্রধান, পঞ্চায়েত সদস্যদের স্বজন পোষন, দুর্নীতির পূর্ণ তদন্ত করে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া দাবি জানায়। সেই সঙ্গে যারা প্রকৃত ক্ষতিগ্ৰস্ত তাদেরকে ক্ষতি পূরণ দেওয়ার জন্য দাবি জানিয়ে ও ১০০ দিনের কাজে দুনীর্তি গ্রস্তদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেওয়া সহ বিভিন্ন দাবিতে ডেপুটেশন তুলে দেয় তারা। এই সমস্ত দাবি পূরণ না হলে আগামী দিনে পঞ্চায়েত, বিডিও অফিস, এসডিও অফিসের সামনে গন বিক্ষোভ ও বৃহত্তর আন্দোলনে নামা হবে জানায় বামফ্রন্টের সমস্ত সংগঠন গুলি।

Related Articles

Back to top button
Close