fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পরিযায়ী শ্রমিক সহ কাজ হারানো সকলকে মাসে ১০ হাজার টাকা করে ভাতা দেওয়ার-সহ বিভিন্ন দাবি আন্দোলনে বামেরা

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা:  পরিযায়ী শ্রমিক সহ কাজ হারানো সকল গরিব মানুষ কে মাসে ১০ হাজার টাকা করে ভাতা দেওয়ার দাবি সহ বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলনে নামল বামেরা। মহকুমা বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার দিনহাটা শহরের পাঁচ মাথার মোড়ে এই বিক্ষোভ কর্মসূচি পালিত হয়। এদিন মহকুমা বামেদের এই বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালীন সেখানে উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের রাজ্য সম্পাদক তথা ফরওয়ার্ড ব্লক নেতা আব্দুর রউফ, বিকাশ মন্ডল, শ্যামল ধর , মনীন্দ্রনাথ বর্মন, সি পি আই এমের জেলা সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য তারাপদ বর্মণ, দেবাশীষ দেব,গৌরাঙ্গ পাইন, প্রবীর পাল, এসএফআইয়ের রাজ্য কমিটির সদস্য শুভ্রালোক দাস সহ মহকুমা বামফ্রন্টের বিভিন্ন শাখা সংগঠনের নেতৃত্বরা।

বামেদের এদিন বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালীন সেখানে পরিযায়ী শ্রমিকসহ কর্মহীন হয়ে পড়া শ্রমিকদের মাসে ১০ হাজার টাকা করে ভাতা প্রদানের দাবি ছাড়াও আমপান ঘূর্ণিঝড় কে জাতীয় বিপর্যয় হিসেবে কেন্দ্রীয় সরকারকে ঘোষণা করার দাবিতে সরব হয় বাম নেতৃত্ব। এদিন মহকুমা বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত বাংলায় প্রয়োজন অনুযায়ী অর্থ বরাদ্দের দাবি জানানো হয়। এই দাবিগুলির পাশাপাশি দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে করোনা টেস্ট করার ব্যবস্থা অবিলম্বে শুরু করারও দাবি জানান হয়।

আরও পড়ুন: ‘গৃহ সম্পর্ক অভিযান’ শুরু পুরুলিয়ার সাংসদ জ্যোতির্ময়ের

এছাড়াও লকডাউন চলাকালীন ঘূর্ণিঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষদের জন্য প্রাণ বন্টনের দুর্নীতি দলবাজি বন্ধ করে ব্লক স্তরের সর্বদলীয় সভা করে স্বচ্ছতার সাথে অবিলম্বে ত্রাণ দেওয়া, কৃষকের ফসলের ন্যায্য দাম ওখতি হওয়া ফসলের জন্য ক্ষতিপূরণ প্রভৃতি দাবিতেও সরব হন বামেরা। বামেদের এদিন বিক্ষোভ আন্দোলনকে ঘিরে ব্যাপক আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ে। বামফ্রন্ট নেতৃত্ব বলেন দাবিগুলো নিয়ে কেন্দ্রীয় রাজ্য সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ না করলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলনে নামা হবে

Related Articles

Back to top button
Close