fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউন আর আমফানের আক্রমণে ক্ষতির মুখে লিচু চাষিরা

মিল্টন পাল, মালদা: করোনা সংক্রমণের জেরে লকডাউন অন্যদিকে আমফান ঘুর্ণি ঝড়ের ষাঁড়াশি আক্রমণে মরশুমে লিচু চাষিরা বাজার ধরতে পারছেন না। ফলে মালদার কালিয়াচকের বাজারে ডালি বোঝাই লিচু পসরা সাজিয়ে বসলেও পাইকার ও ক্রেতা শূন্য। আর ফলে ক্ষতির মুখে মাথায় হাত লিচু চাষিদের। চলতি বছর বিপুল পরিমাণে লিচু উৎপাদন হলেও শ্রমিকের অভাব, লিচু সময়ের মধ্যে গাছ থেকে নামাতে পারেননি চাষিরা। এমনকী মালদার লিচু বাইরে রফতানি করার ক্ষেত্রে চরম সংকট দেখা দিয়েছে। চরম সংকট অবস্থায় প্রশাসন ও সরকার সাহায্যের দিকে তাকিয়ে রয়েছে মালদার লিচু চাষিরা।

উদ্যান পালন দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, কালিয়াচক ১,২,৩ , ইংরেজবাজার , রতুয়া , মানিকচক , চাচোল এলাকাতেই মূলত বিপুল পরিমাণে লিচু চাষ হয়। পাশাপাশি আমের পর জেলার অন্যতম অর্থকরী ফল হচ্ছে লিচু। মালদা জেলায় প্রায় ৫ হাজার হেক্টর জমিতে লিচু চাষ হয়ে থাকে। এখনও পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার মেট্রিক টন লিচু ক্ষয়ক্ষতির সম্ভাবনা রয়েছে।
লিচু চাষিরা জানান, সময়মতো লিচু বাগানের পরিচর্যা করতে পারেননি তাঁরা। তার ওপর শ্রমিকের অভাবে লিচু গাছ থেকে নামাতে পারেননি চাষিরা। বাদুড় এবং পাখিতেই বহু গাছের লিচুর ফল নষ্ট করেছে। তার ওপর কোথাও কোথাও লিচু বাজারে এলেও পাইকার, ক্রেতাদের অভাবে সমস্যা তৈরি হয়েছে। এমনকী ব্যবসায়ীদের অভাবের জেরে বাইরের রাজ্যে রফতানি করতে সমস্যায় পড়েছেন মালদা লিচু চাষিরা।

কালিয়াচক ১ ব্লকের লিচু চাষিরা জানান, একদিকে লকডাউন, তার ওপর ঘূর্ণিঝড় এবং দফায় দফায় কালবৈশাখীর ঝড় – বৃষ্টিতে লিচু চাষে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। ফলন ভালো হলেও শ্রমিকের অভাব তার উপর লকডাউন এবং ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে চাষিদের ব্যাপক ক্ষতির মুখে ফেলেছে। এই অবস্থায় লিচু চাষিরা কি করবেন কিছুই বুঝে উঠতে পারছেন না।

কালিয়াচক ১ ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি আতিকুর রহমান জানিয়েছেন, লকডাউনের জেরে লিচু চারা চাষিরা ক্ষতির মুখে পড়েছে। ফলন ভালো হলেও বাজার পাওয়া যাচ্ছে না। তাই এই অবস্থায় কি করে লিচু চাষিদের বাজার ধরা যায়, সেই বিষয়টিও প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে সমাধানের চেষ্টা চেষ্টা করা হচ্ছে।

উদ্যানপালন দফতরের মালদা জেলা আধিকারিক রাহুল চক্রবর্তী জানিয়েছেন, এবছর লিচুর ফলন ভালো হয়েছে। ইতিমধ্যে বাজারেও লিচু নেমে গিয়েছে।সময়ের অপেক্ষা লিচুর বাজার পাবে।

Related Articles

Back to top button
Close