fbpx
দেশহেডলাইন

কানাডা-ব্রিটেনের মতো ভারতেও হবে ভার্চুয়াল বাদল অধিবেশন!

নয়াদিল্লি: এবার কি ভার্চুয়াল সংসদ অধিবেশন? কানাডা-ব্রিটেনের পথেই কি হাঁটতে চলেছে ভারতও? লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লা,  রাজ্যসভার চেয়ারম্যান উপরাষ্ট্রপতি ভেঙ্কাইয়া নায়ডু এবং দুই কক্ষের সেক্রেটারি জেনারেলদের বৈঠক থেকে অন্তত তেমনই ইঙ্গিত মিলেছে।
করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই জুলাইয়ে শুরু হতে চলেছে সংসদের বাদল অধিবেশন। কিন্তু সংসদের দুই কক্ষে সাংসদ সংখ্যা হিসাব করলে অধিবেশনকালে সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলা কঠিন হবে। তাহলে অধিবেশন হবে কীভাবে? সূত্রের দাবি, এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে দুই কক্ষের সেক্রেটারি জেনারেলদের নিয়ে বৈঠকে বসেন লোকসভার অধ্যক্ষ এবং রাজ্যসভার চেয়ারম্যান। সেখানে আসন সংখ্যা  হিসাব করে দেখা যায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সব সাংসদকে বসানোর মতো আসন নেই দুই কক্ষেই। বিকল্প হিসাবে সংসদের সেন্ট্রাল হল ও দিল্লির বিজ্ঞান ভবন, এই দু’টি স্থানের কথা আলোচনায় উঠে আসে। কিন্তু বিজ্ঞান ভবনের প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে তা প্রথমেই বাতিল হয়ে যায়। সংসদের সেন্ট্রাল হল নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা হলেও শেষ পর্যন্ত তাও বাতিল করা হয় শীততাপনিয়ন্ত্রিত ব্যবস্থা না থাকার কারণে। আর এর পরেই কানাডা ও ব্রিটেনের উদাহরণ তুলে ভার্চুয়াল অধিবেশনের বিকল্প প্রস্তাব নেওয়া হয়।
কারণ, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই গত ১৭ মে থেকে অনলাইনে ভার্চুয়াল সংসদ অধিবেশন সম্পন্ন করেছে কানাডা। একই পথে হাঁটছে ব্রিটেন সংসদও। কিন্তু ভারতের ক্ষেত্রে সেখানেও সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় সাংসদদের অনেকের অনলাইন কর্মকাণ্ডে অনভিজ্ঞতা।
এই সমস্যা কাটাতে বলা হয়, সংসদে ১০০ জনকে দূরত্ব বজায় রেখে বসানো যাবে। তাই যে বা যাঁরা অনলাইনে অধিবেশনে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না তাঁদের সংসদে আসতে বলা হবে। আর তাছাড়া যাঁর যেদিন আলোচনায় অংশগ্রহণ থাকবে শুধুমাত্র সেই সমস্ত সাংসদ ইচ্ছে করলে আসতে পারবেন। বাকি যাঁরা অনলাইনে অভ্যস্ত, তাঁরা ঘরে বসেই অধিবেশনে অংশগ্রহণ করবেন। তবে এটা এখনই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নয়। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সমস্ত বিকল্প ব্যবস্থা খতিয়ে দেখে সেক্রেটারি জেনারেলদের কাছ থেকে রিপোর্ট আসার পরেই সিদ্ধান্ত নেবেন ওম বিড়লা ও ভেঙ্কাইয়া নায়ডু।

Related Articles

Back to top button
Close