fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মালদায় বসতিপূর্ণ এলাকায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার না খোলার দাবিতে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

মিল্টন পাল,মালদাঃ করোনা সংক্রমনের জেরে লকডাউনে ভিন জেলায় আটকে রয়েছে বহু শ্রমিক। আর সেই সমস্ত শ্রমিককে জেলায় ফিরিয়ে বসতি এলাকায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের রাখার ব্যবস্থা করছে জেলা প্রশাসন। এই এলাকায় নতুন করে কোয়ারেন্টিন সেন্টার করতে দেওয়া হবে না, সেই দাবিতেই বুধবার গভীর রাত পর্যন্ত মঙ্গলবাড়ী ওসমানিয়া হাই মাদ্রাসা এবং গৌড় কলেজের রাস্তা বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখালেন শতাধিক বাসিন্দারা।

 

 

পাশাপাশি মালদা থানার শিবরামপল্লী এলাকায় গার্লস স্কুলেও কোয়ারেন্টাইন সেন্টার না খোলার দাবিতে বিক্ষোভ দেখায় বাসিন্দারা। বাসিন্দাদের এই বিক্ষোভের কথা জানতে পেরে চরম অস্বস্তিতে পড়ে যায় পুরাতন মালদা থানা পুলিশ ও প্রশাসন কর্তৃপক্ষ । এলাকার মানুষকে বোঝানোর জন্য ঘটনাস্থলে আসেন সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশ, প্রশাসন ও পুরসভার কর্তারা । কিন্তু তাঁদের সামনেই সংশ্লিষ্ট এলাকার কলেজ এবং বিদ্যালয় কেন্দ্রগুলিতে কোনরকম যাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার না করা হয় তার দাবিতে অনড় থাকেন এলাকার শতাধিক বাসিন্দারা । রাস্তা বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখান তারা। গভীর রাত পর্যন্ত সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দাদের এই বিক্ষোভের জেরে বিপাকে পড়ে যায় পুলিশ , প্রশাসনের কর্তারা। অবশেষে পুরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষের আশ্বাসে বিক্ষোভকারীরা অবরোধ তুলে নেন।

 

 

উল্লেখ্য, ভিন রাজ্য ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের নতুন করে স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং ১৪ দিনের ঘরবন্দি করে রাখতেই কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে প্রশাসন । যদিও এর আগে পুরাতন মালদা সাহাপুর হাইস্কুল সহ দুটি এলাকায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার চালু করা হয়েছিল প্রশাসনের পক্ষ থেকে। কিন্তু ১৪ দিন সময় সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পর সেই দুটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু তারপরেও পরিযায়ী শ্রমিকদের পুরাতন মালদা এলাকায় ফেরার প্রবণতা কমে নি। লকডাউনের মধ্যে দিন যত যাচ্ছে, ভিন রাজ্য ফেরত পরিযায়ী শ্রমিকদের সংখ্যা পুরাতন মালদা ততটাই বাড়ছে। সেইদিকে উদ্বেগ প্রকাশ করেই প্রশাসন ও পুরসভা কর্তৃপক্ষ নতুন করে কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে।

 

 

এদিকে বুধবার রাতে পুরাতন মালদা পুরসভার মঙ্গলবাড়ী এলাকার গৌড় কলেজ এবং ওসমানিয়া হাই মাদ্রাসা নতুন করে কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালু করা হবে এমনই খবর চাউর হয়ে যায় এলাকাবাসীর মধ্যে। আর তারপরই শুরু হয় সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে বিক্ষোভ। মুহূর্তের মধ্যে শতাধিক ওই এলাকার বাসিন্দারা গৌড় কলেজ এবং ওসমানিয়া হাই মাদ্রাসার সামনে রাস্তায় বাঁশের ব্যারিকেট করে অবরোধ শুরু করে দেন। বিক্ষোভকারীদের সাফ কথা, এই এলাকাটি ঘন জনবসতিপূর্ণ । কাজেই এখানে কোয়ারেন্টিন সেন্টার হতে দেওয়া যাবে না। বাইরে থেকে পরিযায়ী শ্রমিকের দল আসছে। তার মধ্যে কারোর যদি করোনা ধরা পড়ে, তা নিয়ে আমরা রীতিমতো আতঙ্কিত। আর এই খবর শোনার পর এলাকার বাসিন্দারা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন । তাই নতুন করে কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালু না করার দাবিতে এদিন ওই এলাকার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখানো হয়েছে । পরে অবশ্য পুরসভা কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দেওয়াতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।
পুরাতন মালদার পুরসভার চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষ বলেন, এই এলাকায় কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালুর কোন খবর আমাদের কাছে নেই। একটি গুজব ওই এলাকার মানুষের মধ্যে কেউ বা কারা ছড়িয়েছে। তা নিয়ে একটা অসন্তোষ তৈরি হয়েছিল। এলাকার বাসিন্দাদের বুঝিয়েছি,যে সেখানে কোয়ারেন্টিন সেন্টার চালু হচ্ছে না। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close