fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কাঁথিতে পানীয় জল ও বিদ্যুৎতের দাবিতে জাতীয় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ স্থানীয়দের

মিলন পণ্ডা, কাঁথি: বিদ্যুৎ ও পানীয় জলের দাবি তুলে জাতীয় সড়কের উপর কাঠের গুঁড়ি ফেলে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালো এলাকায় বাসিন্দারা। দীর্ঘক্ষণ অবরোধের ফলে জাতীয় সড়কের উপর দাঁড়িয়ে পড়ে একাধিক পণ্যবাহী লরি। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে যায় পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার দিঘা নন্দকুমার জাতীয় সড়কে কাঁথি মেচেদা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায়।

গ্রামবাসীর অভিযোগ আমফান ঝড়ের শহর জুড়ে একাধিক বিদ্যুতের খুটি ভেঙে পড়েছে। কাঁথি শহরে শেরপুরের এতোয়াড়ি পরিবারের অধিকাংশ বাড়িতে বিদ্যুৎ নেই। বিদ্যুৎ না থাকার কারণে পানীয় জলের ক্ষেত্রে বেশ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে এলাকার বাসিন্দাদের। এনিয়ে বিদ্যুৎ দপ্তর ও কাঁথি পুরসভাকে একাধিকবার জানানো হয়েছে। কোন সুফল পাওয়া যায়নি। গত কয়েকদিন ধরেই চলছে পানীয় জল ও বিদ্যুতের সংকট। অনেক দূর থেকে পানীয় জল নিয়ে আসতে হচ্ছে আবার কোথাও অনেক চড়া দাম দিয়ে কিনতে হচ্ছে পানীয় জল।

আরও পড়ুন: জেলায় বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, ব্যর্থতার অভিযোগ স্বাস্থদপ্তরের বিরুদ্ধে

এদিন সকালে দিঘা নন্দকুমার জাতীয় সড়কের কাঁথি মেছেদা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় কাঠের গুড়ি ফেলে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে এলাকার বাসিন্দারা। প্রায় এক ঘণ্টার অবরোধে জেরে রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে পড়ে একাধিক পন্যবাহী লরি ও যাত্রীবাহী বাস। অবরোধের জেরে বেশ সমস্যায় পড়ে অফিসযাএীরা। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে আসে কাঁথি থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী। উত্তেজিত বাসিন্দাদের আশ্বাস দিয়ে অবরোধ তুলে দেয় কাঁথি থানার পুলিশ।

অবরোধকারী পক্ষে নন্দন বেরা বলেন আম্ফান ঘূর্ণিঝড়ের পর থেকে এলাকায় বিদ্যুৎ ও পানীয় জল নেই। পানীয় জল ও বিদ্যুতের দাবিতে একাধিকবার বিদ্যুৎ দপ্তরের আধিকারিক ও কাঁথি পুরসভায় জানানো হয়েছে। কিন্তু তাদের কাছ থেকে কোনো সমাধানের সূত্র বের হয়নি। তিনি আরও বলেন কাঁথি থানার পুলিশ আধিকারীরা সন্ধ্যার মধ্যে সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন। কোন সমাধান না বের হয় আগামী দিনে বৃহত্তর আন্দোলনের হুশিয়ারি দেন।

Related Articles

Back to top button
Close