fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আগুনে ভষ্মীভূত গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি লরি, ধ্বংসস্তূপে পরিণত যাত্রী প্রতীক্ষালয়

পাপ্পা গুহ, উলুবেড়িয়া: রাস্তার পাশে থাকা যাত্রী প্রতীক্ষালয়ে ধাক্কা মেরে আগুনে ভষ্মীভূত হয়ে গেল গ্যাস সিলিন্ডার ভর্তি একটি লরি। মঙ্গলবার রাতে ৬ নং জাতীয় সড়কে সাঁকরাইল থানার রানিহাটির এই ঘটনায় একটি ডেকোরেটরের গুদাম পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পরে দমকলের ৮ টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণের কাজে যোগ দেয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাত ১২ টা নাগাদ একটি গ্যাস সিলিন্ডার বোঝাই লরি কলকাতা অভিমুখে যাওয়ার সময় রানিহাটির কাছে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তায় বাসের যাত্রী প্রতীক্ষালয়ে ধাক্কা মারে। দুর্ঘটনায় লরিতে আগুন ধরে যায়। আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়ে গ্যাস সিলিন্ডারে। দাউদাউ করে জ্বলতে থাকে লরিটি। চোখের নিমিষে আগুনের লেলিহান শিখা গ্রাস করে পাশের ডেকোরেটরের গুদামে। পুড়ে যায় গুদামে থাকা সমস্ত জিনিসপত্র।

এদিকে আগুন লাগার খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পাঁচলা ও সাঁকরাইল থানার পুলিশ। জাতীয় সড়কের দুই দিকের রাস্তায় যান চলাচল বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি এলাকা বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয়। খবর দেওয়া হয় দমকলকে। পরে দমকলের ৮ টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে ৫ ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এদিকে বুধবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেল যাত্রী প্রতীক্ষালয়টি ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে পড়ে আছে পোড়া গ্যাসের সিলিন্ডার ও জিনিসপত্র।

ডেকোরেটরের মালিক গোপাল রায় জানান, গুদামে কয়েক লক্ষ টাকার সাউন্ড সিস্টেম সহ প্রচুর জিনিসপত্র ছিল যে ক্ষতি হয়ে গেছে। তার দাবি, আগুনে তার কোটি টাকার উপর ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। অন্যদিকে আগুন লাগা সম্পর্কে নাবঘরা আদর্শ দোকানদার কল্যাণ সমিতির সম্পাদক তাপস কুমার ঘোষাল জানান, আগুন লাগার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছলেও আগুনের তীব্রতা এবং গ্যাস সিলিন্ডার থাকায় কেউ ভয়ে কাছে ঘেষতে পারেনি। তবে পুলিশ ও দমকল দ্রুত আগুন নেভানোর কাজে হাত লাগানোয় বড়োসড়ো বিপদ এড়ানো গেছে বলে জানান তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close