fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ, আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টি গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে!

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:   মৌসুমী বায়ুর প্রভাবে উত্তর থেকে দক্ষিণে প্রায় সর্বত্রই গত কয়েকদিন ধরে চলছে বৃষ্টি। সেই সঙ্গে নয়া দোসর বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া ঘূর্ণাবর্ত যা ক্রমশ শক্তিশালী নিম্নচাপে পরিণত হচ্ছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানিয়েছে, মৌসুমী বায়ু এবং নিম্নচাপ এই দুইয়ের জেরে চলতি সপ্তাহে ভারী বৃষ্টিপাত হবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে। বিশেষ করে বেশি বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে। এ ছাড়াও গাঙ্গেয় উপকূল সংলগ্ন জেলাগুলিতেও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। লাগাতার বর্ষণ অবশ্য হবে না। তবে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির ক্ষেত্রেও তীব্রতা যথেষ্টই বেশি থাকবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস।

বংলা জুড়েই বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকলেও ওড়িশা সংলগ্ন দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রাম জেলায় বৃষ্টির পরিমাণ বেশি হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। সোমবার এই নিম্নচাপের প্রভাবে কলকাতা সহ গাঙ্গেয় বৃষ্টির জেলাগুলিতে দিনভর কয়েক দফায় বৃষ্টি হবে। বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টি হতে পারে পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম ,মুর্শিদাবাদ ও পশ্চিম বর্ধমানে। উত্তরবঙ্গেও বিক্ষিপ্তভাবে ভারী বৃষ্টি হবে কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার জেলায়। বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হবে মালদা এবং উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর থেকে জানা গিয়েছে, মৌসুমি অক্ষরেখা ওড়িশার নিম্নচাপ এলাকা দিয়ে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর প্রভাবে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছে দুই রাজ্যেই। এর ফলেই আগামী দুই দিন বৃষ্টি হবে বাংলাজুড়ে। কলকাতায় এদিন সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ। দফায় দফায় বৃষ্টিও হচ্ছে। বাতাসে প্রচুর জলীয় বাষ্প থাকায় আদ্রতা জনিত অস্বস্তিও রয়েছে। সেই সঙ্গে আজ এবং আগামীকাল দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও থাকছে। আগামী কয়েকদিন দক্ষিণবঙ্গে্র জেলাগুলিতেও বজ্রবিদ্যুৎ সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। বুধবার থেকে আবার বৃষ্টি বাড়বে দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ে। বৃহস্পতিবার থেকে ফের অতিভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারে। ভারী বৃষ্টি হবে দার্জিলিং, কালিম্পং ও জলপাইগুড়িতেও। সপ্তাহান্তে অতিভারী বৃষ্টির আশঙ্কা থাকছে উত্তরবঙ্গে। আবহাওয়া দফতরের অনুমান, সমুদ্র উত্তাল হতে পারে আগামী দু’দিন। উপকূলবর্তী অঞ্চলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে।তাই সোম ও মঙ্গলবার মত্‍স্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: সপ্তাহের প্রথম দিন, বাস বাড়লেও অভাব যাত্রীর!

আলিপুরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, সোমবার ভোর থেকে কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় দু-এক পশলা বৃষ্টি ইতিমধ্যেই হয়ে গিয়েছে। তীব্রতা এবং স্থায়িত্ব কোথাও বেশি, কোথাও বা কম। আজ দক্ষিণবঙ্গের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩১ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশেপাশেই থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আজ সকাল থেকেই মেঘলা রয়েছে আকাশ। বাতাসে আর্দ্রতা বেশি থাকলেও বৃষ্টি হওয়ার ফলে সেভাবে গুমোট গরম অনুভূত হচ্ছে না। আজ কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। গতকাল শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস , যা স্বাভাবিকের তুলনায় ১ ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৭ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৮৪ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টি হয়েছে ৩২.৪ মিলিমিটার।

 

Related Articles

Back to top button
Close