fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তৃণমূল অপশাসনে পশ্চিমবঙ্গে খুন, সন্ত্রাস ও ধর্ষণ বেড়েছে : মহাদেব সরকার

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস : রাজ্য শাসনের নামে পশ্চিমবঙ্গে অপশাসন চলছে। বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির কন্ঠরোধ, নিত্য নৈমিত্তিক ঘটনা, কিন্তু সাধারণ মানুষের কি অপরাধ! এরাও পাড় পাচ্ছে না তৃণমূলী সন্ত্রাসীদের হাত থেকে। একের পর এক খুন, সন্ত্রাস, রাহাজানিতে রাজ্য আজ এগিয়ে, তৃণমূল দলটির বিরুদ্ধে ঠিক এভাবেই ক্ষোভ উগড়ে দিলেন, বিজেপি কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি মহাদেব সরকার। সোমবার দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে দলীয় কার্যালয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে কথাগুলি বলেন মহাদেববাবু।

 

গতকাল ব্যারাকপুরের বিজেপি নেতা মনীশ শুক্লা টিটাগড় থানা থেকে ঠিল ছোড়া দূরত্বে সন্ধ্যা গড়াতেই প্রকাশ্যলোকে খুন হন এবং ঘটনার ২৪ ঘন্টা অতিক্রান্ত হতে চলল। কিন্তু পুলিশ এখনও প্রকৃত খুনীদের গ্রেফতার করতে না পারায় ক্ষোভ বাড়ছে জনমনে।ঘটনা স্থল থেকে ঠিল ছোঁড়া দূরত্বে টিটাগড় থানা,পুলিশের নাকের ডগায় এ হেন ঘটনা ঘটিয়ে পার পেয়ে যাবে? পুলিশের বিশ্বাসযোগ্যতায় চিড় ধরতে শুরু করেছে। ঘটনায় সর্বসাধারণের মনে একটাই প্রশ্ন, রাজ্যে কি সত্যিই আইন শৃঙ্খলা আছে? সাংবাদিক সম্মেলনে শাসক দলের বিরুদ্ধে প্রশ্ন ছুড়ে দেন মহাদেব বাবু। তিনি আরো অভিযোগ করেন, পুলিশ এখন তৃণমূলের দলদাসে পরিনত, পিসি ভাইপো যা বলবেন, রাজ্যের প্রশাসন কে সে ভাবেই চলতে হবে।

 আরও পড়ুন: স্বরাষ্ট্র সচিব, ডিজি গরহাজির, ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল কথা বলতে চাইলেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে

আর এই তুষ্টিকরনের রাজনীতির ফলে পশ্চিমবঙ্গ আজ সব দিকথেকে পিছিয়ে পড়েছে। মহাদেব বাবু সাংবাদিক দের মুখোমুখি হওয়ায় প্রধান বিষয় ছিল, কৃষি বিলের সমর্থনে দলীয় অবস্থান সহ বিলের বিস্তারিত আলোচনা। কিন্তু প্রথমেই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা বিষয়ে গতকালের ব্যারাকপুরের ঘটনার প্রসঙ্গ উঠে আসে। কেন্দ্রের নয়া কৃষি বিল, এই বিল অনুমোদনের ক্ষেত্রে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের ভূমিকা, এই বিল কার্যকরের মধ্যদিয়ে দেশের কৃষকেরা কিভাবে উপকৃত হবেন। বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির ইসুহীন ভোঁতা বিরোধিতা প্রভৃতি বিষয়ের উপর আলোকপাত করেন কৃষাণ মোর্চার রাজ্য সভাপতি মহাদেব সরকার।

Related Articles

Back to top button
Close