fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

তর্পনের দিন গঙ্গার ঘাটে উপস্থিত থাকবে পুর আধিকারিকরা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এই বছর তর্পণ এর সময় গঙ্গার ঘাট গুলিতে উপস্থিত থাকবেন কলকাতা পুরসভার আধিকারিকরা। সম্প্রতি কলকাতা পুরসভার উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকের সিদ্ধান্ত হয়েছে এমনটাই। করণা আবহে কিভাবে তর্পণ হবে গঙ্গার ঘাট গুলিতে তা নিয়ে ইতিমধ্যেই পুলিশের সঙ্গে একপ্রস্থ বৈঠক সেরে ফেলেছে কলকাতা পুরসভা।

চলতি বছরে করোনা আবহে গঙ্গার ঘাট গুলিতে তর্পনের অনুমতি দিলেও বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে কলকাতা পুরসভার তরফে। পুর ভবন সূত্রে খবর, আগামীকাল বৃহস্পতিবার তর্পনের দিন কলকাতায় যে গঙ্গার ঘাট গুলিতে তর্পণ হবে সেখানে উপস্থিত থাকবেন কলকাতা পুরসভার উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা। এছাড়াও সেখানে উপস্থিত থাকবেন বিপর্যয় মোকাবিলার বাহিনী, কলকাতা পুলিশ।

তর্পনের ঘাটে মাস্ক, সামাজিক দূরত্ব বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বুধবার শহরের গঙ্গার ঘাট গুলিকে পরিষ্কার করার কাজ শুরু করেছে কলকাতা পুরসভা। কাজগুলি পরিষ্কার করার পাশাপাশি সেখানে সাদা চুন দিয়ে গোল গোল দাগ কেটে দেওয়া হচ্ছে। পুর আধিকারিকরা জানিয়েছেন ওই গোলের মধ্যে দাঁড়িয়ে এবার সারতে হবে তর্পণ। আগামীকাল সকাল থেকেই মাইকে ঘোষণা শুরু করবে প্রশাসন।

এই বিষয়ে কলকাতা পুরনিগমের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, ‘অন্য বছরের চেয়ে এ বারের পরিস্থিতি আলাদা। সে-কারণেই বেশ কিছু নিয়ম চালু করার কথা আমরা ভেবেছি। সবচেয়ে বেশি ভিড় থাকে যে যে ঘাটে, সেখানে বাড়তি লোক মোতায়েন রেখে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পরিকল্পনা নিচ্ছে পুরনিগম। বাবুঘাট, নিমতলা ঘাট, জাজেস ঘাট, বাজে কদমতলা ঘাটে অন্যান্য বছরের তুলনায় দ্বিগুণ পুলিশ মোতায়েনের কথাও পুরনিগমের তরফে লালবাজারকে জানানো হয়েছে।’ মহালয়ার ভোরে ঘাটগুলিতে আসা আমজনতা যাতে সুরক্ষার সঙ্গে তর্পণ শেষ করতে পারেন সে বিষয়ে যাবতীয় আয়োজন তৈরি রাখতে পুর আধিকারিকদের ইতিমধ্যেই নির্দেশ দিয়েছেন পুর প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

Related Articles

Back to top button
Close