fbpx
কলকাতাহেডলাইন

২১শের নির্বাচনের ঘুঁটি সাজাতেই আজ সাংগঠনিক বৈঠকে মমতা, নেতৃত্বে রদবদলের সম্ভাবনা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ২১শে জুলাই ভার্চুয়াল সভার মধ্যে দিয়েই আগামী  বিধানসভা নির্বাচনের দামামা বাজিয়ে দিয়েছে তৃণমূল সুপ্রিমো। শহিদ মঞ্চ থেকে হুঙ্কার দিয়ে জানিয়েছেন, ২১শে তৃণমূলই সরকার গঠন করবে। গুজরাটকে বাংলা শাসন করতে দেবে না। সব বঞ্চনার অদলা নেবে তৃণমূল। লোকসভা ভোটের ভুল ত্রুটি থেকে শিক্ষা নিয়েই বিধানসভা নির্বাচনে নিজেদের পায়ের তোলার মাটি শক্ত করতেই  আজ, বৃহস্পতিবার সাংগঠনিক বৈঠকে বসছেন তিনি। লকডাউন এবং স্বাস্থ্যবিধির কারণে তাও হবে ভারচুয়াল মাধ্যমে। সূত্রের খবর, আজ বিকেলে ভিডিও কনফারেন্সে নেতা, মন্ত্রী, জেলার পর্যবেক্ষক, সভাপতিদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন মমতা। একুশের বিধানসভায় মূল প্রতিপক্ষ বিজেপির বিরুদ্ধে রণকৌশল ঠিক হতে পারে সেখানে।

জানা গিয়েছে, সংগঠন নিয়ে নেতাদের মতামত জানতে চাইবেন নেত্রী। আগামী দিনে কীভাবে দলকে আরও শক্তিশালী করা যায় সেই বার্তা দেবেন। দলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জি, রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সি নেত্রীর সঙ্গে থাকবেন। সাংগঠনিক কিছু রদবদলের সম্ভাবনা আছে। পর্যবেক্ষকদের নেত্রী প্রয়োজনীয় নির্দেশ দেবেন। বছর শেষ হলেই বিধানসভার নির্বাচন। সেই বিচারে এই বৈঠক খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নেত্রী চাইছেন দলকে আরও শক্তিশালী ও সঙ্ঘবদ্ধ করতে। জেলার নেতারা সমন্বয় রেখে পর্যবেক্ষকদের সঙ্গে কাজ করুন। সামনে ভোটের লড়াই আসছে। এই লড়াইয়ে জিততে হলে বিজেপি-‌র বিরুদ্ধে এখন থেকে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। বাংলার মাটিতে কোনও মতেই তাদের স্থান দেওয়া চলবে না বলে ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন দলনেত্রী।

শাসকদলের বিরুদ্ধে ফের বড়সড় অভিযোগ উঠেছে আমফানের ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি। যদিও অভিযোগ পেতেই তড়িঘড়ি কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে দল। পঞ্চায়েত স্তরের বেশ কয়েকজন নেতাকে শোকজ, সাসপেনশনের পথে হেঁটেছে দল। একুশের ভোটে তাও একটা কাঁটা হতে পারে, এই আশঙ্কা থাকছেই। ফলে তা দূর করতে জেলা নেতৃত্বের স্তরে পরিবর্তন হতে পারে আজকের বৈঠকে। দলের অন্দরে জোর জল্পনা, শুভেন্দু অধিকারীর দায়িত্ব আরও বাড়তে পারে। নতুন মুখ উঠে আসতে পারে রাজ্য সংগঠনে।

আরও পড়ুন: রাস্তাঘাট শুনশান, করোনা আবহে রাজ্যের নির্দেশে চলছে লকডাউন

দলের এক শীর্ষনেতার বক্তব্য, পুরনো কর্মীদের আরও কাজে নামাতে চান নেত্রী। ছাত্র, যুব, মহিলা সংগঠন যাতে আরও শক্তিশালী হয় তার জন্য দলের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদের জানিয়ে দেওয়া হয়েছে। করোনা, আমফানের মধ্যে সামাজিক কাজ করার জন্য তৃণমূল যুব সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জির তৈরি বাংলার ‘‌যুবশক্তি’‌-র সদস্যরা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়েছেন। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলা, মু্র্শিদাবাদ, মালদা, হাওড়া, নদিয়া, জঙ্গলমহলের সংগঠনকে আরও বেশি শক্তিশালী করতে চান দলনেত্রী। আজকের ভিডিও কনফারেন্সে জেলা সভাপতিদেরও এই বিষয়ে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দেওয়া হতে পারে।

Related Articles

Back to top button
Close