fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

নজরে বিজেপির ‘নবান্ন অভিযান’, ঝাড়গ্রাম থেকে ফিরেই রাজ্য পুলিশের ডিজি-র সঙ্গে বৈঠক মুখ্যমন্ত্রীর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ঝাড়গ্রাম থেকে ফিরেই রাজ্য পুলিশের ডিজি-র সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝাড়গ্রাম সফর শেষে কলকাতায় ফেরেন মুখ্যমন্ত্রী। হাওড়ার ডুমুরজলায় একলব্য স্কুলমাঠের অস্থায়ী হেলিপ্যাডে নামার পরই সোজা চলে যান নবান্নে। তবে স্যানিটাইজেশনের কাজ চলার জন্য এদিন নবান্নে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরও ছিল ফাঁকা। পরে নবান্ন থেকে বেরিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভবানী ভবনে যান। সেখানে গিয়ে বৈঠক করেন রাজ্য পুলিশের ডিজির সঙ্গে। বিজেপির নবান্ন অভিযান ঘিরে বৃহস্পতিবার দিনভর অশান্ত ছিল কলকাতা। শহরের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী আলোচনা করেন ডিজির সঙ্গে। ভবানীভবন এর কনফারেন্স রুমে বসে ডিজির সঙ্গে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। বিজেপির নবান্ন অভিযান এর ফুটেজ তিনি খতিয়ে দেখেন বলে ভবানী ভবন সূত্রে খবর। জেলা সফর থেকে ফিরে নবান্ন অভিযান এর ফুটেজ খতিয়ে দেখার জন্য ডিজির সঙ্গে বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই বিজেপির নবান্ন অভিযান কর্মসূচি ঘিরে এদিন রণক্ষেত্র হয়ে ওঠে রাজপথ। ধুন্ধুমার বাধে হাওড়া সাঁতরাগাছি স্টেশনে। তুলকালাম বাধে হাওড়া ফোরশোর রোড, জিটি রোডে। জিটি রোডে বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। হাওড়া ময়দান এলাকায় টায়ার জ্বালিয়ে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। এমনকি বিজেপির মিছিল থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ এক কর্মীকে গ্রেফতারও করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: রাজ্যের ভ্রস্টাচার সরকারকে উপড়ে ফেলার আহ্বান তেজস্বী সূর্যের

মিছিল আটকাতে পুলিশের লাঠিচার্জ , কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানোর অভিযোগ। আহত হন বহু বিজেপি কর্মী সমর্থক। পরিস্থিতি মোকাবিলায় নামানো হয় RAF। মিছিল শুরুর মুহূর্তেই রণক্ষেত্র চেহারা নেয় কলকাতার হেস্টিংস ও সাঁতরাগাছি চত্বর। মিছিল ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশের লাঠিচার্জ। কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটানো হয়। শুধু তাই নয়, জলকামানের মাধ্যমেও রঙিন জল ব্যবহার করা হয়। সেই রঙিন জলে রাসায়ানিক মেশানো হয় বলে অভিযোগ। সেই জল গায়ে লাগার পর অসুস্থ হয়ে পড়েন বহু বিজেপি কর্মী-সমর্থক। এমনটাই অভিযোগ বিজেপির। শুধু তাই নয়, ওই জলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন বিজেপি নেতা রাজু বন্দ্যোপাধ্যায়।এর জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। অন্যদিকে হেস্টিংসে বহু বিজেপি কর্মী আহত হন। হেস্টিংস মোড়ে বসে পড়েন কৈলাস বিজয়বর্গীয়, লকেট চট্টোপাধ্যায় সহ বিজেপির নেতানেত্রীরা।

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close